Joy Jugantor | online newspaper

বগুড়ার শেরপুরের কৃষি সাবসেন্টার

সংস্কারের অভাবে এখন অপকর্মের আখড়া

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২০:৪৩, ৫ এপ্রিল ২০২১

সংস্কারের অভাবে এখন অপকর্মের আখড়া

পরিত্যক্ত কৃষি সাব সেন্টার।

বগুড়া শেরপুর উপজেলার কৃষি সাব সেন্টারগুলো সংস্কারের অভাবে বেহাল অবস্থায় পড়ে রয়েছে। পরিত্যক্ত এসব সেন্টারের ভবন এখন অসামাজিক কার্যকলাপের আখড়ায় পরিণত হয়েছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, পরিত্যক্ত থাকা ও কর্তৃপক্ষের নজর না থাকায় অসাধু ব্যক্তিরা এ ভবনগুলোকে তাদের আখড়া বানিয়েছে। দ্রুত এগুলো সংস্কার না করলে দুষ্কৃতিকারীদের অপকর্ম আরও বাড়বে। 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, কৃষি নির্ভর বাংলাদেশে কৃষির উন্নত ফলনের জন্য ইউনিয়ন পর্যায়ে কৃষির আধুনিক কলা কৌশল সম্পর্কে কৃষকদের অবহিতকরণ ও পরিকল্পিত চাষাবাদ পদ্ধতি বাস্তবায়নের জন্য সারা দেশের ন্যায় বগুড়ার শেরপুর উপজেলার গাড়িদহ, খামারকান্দি, সুঘাট, সীমাবাড়ি ও বিশালপুর ইউনিয়নে আশির দশকের গোড়ার দিকে সরকারিভাবে মোট ৫টি ইউনিয়ন কৃষি সাব সেন্টার নির্মাণ করা হয়।

এসব সাব সেন্টারে অফিসের কার্যক্রম ও সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মচারীদের আবাসিক ব্যবস্থা ছিল। সংস্কারের অভাবে প্রায় ১৫/২০ বছর ধরে এগুলো ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। শুধুমাত্র গাড়িদহ সাব সেন্টারে এমন বেহাল দশার মধ্যেও কিছুটা কার্যক্রম চলছে।

অন্যান্য সাব সেন্টারগুলোতে সীমানা প্রাচীর, ঘরের দরজা-জানালা ইত্যাদি না থাকায় স্থানীয় অসাধু ব্যক্তিরা সেখানে মাদক, জুয়াসহ বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপ করে আসছে। এছাড়া ভবনগুলো পরিত্যক্ত হওয়ায় স্থাপনার বহু ইট চুরি হয়ে গেছে। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয়রা বলেন, এলাকার কিছু অসাধু লোকেরা বিভিন্ন বাড়ির গাছের ডাব-নারিকেল, হাঁস-মুরগী চুরি করে এখানে এনে পিকনিক করে। অন্যদিকে নেশাখোরেরা গেড়ে বসেছে আস্তানা। যার ফলে এলাকার যুব সমাজ মাদকের দিকে আসক্ত হয়ে পড়ছে। মাঝে মাঝে নারী ঘটিত নানা অপকর্মও ঘটে এসব জায়গায়। 

এলাকার সুধী মহলের দাবি, সাব সেন্টারগুলো সংস্কার করে এলাকার উন্নয়ন করা হোক অথবা এই পরিত্যক্ত ভবনগুলো অপসারণ করে এসব অসামাজিক কার্যকলাপ বন্ধ করা হোক।

জানতে চাইলে উপজেলা ভারপ্রাপ্ত কৃষি অফিসার রাজিয়া সুলতানা বলেন, আমরা এই সাব সেন্টারগুলো সংস্কার করার জন্য অনেকবার কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। আশা করছি কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে খুব শীঘ্রই এই সাব সেন্টারগুলো সংস্কার করা হবে।