Joy Jugantor | online newspaper

বদলগাছীতে সজনের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

বদলগাছী (নওগাঁ) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৬:৫৬, ৮ মার্চ ২০২১

আপডেট: ১৭:৩৬, ৮ মার্চ ২০২১

বদলগাছীতে সজনের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

বদলগাছীতে সজনে গাছগুলোতে ব্যাপক ফুল ফুটেছে।

নওগাঁর বদলগাছীতে সজনে গাছগুলোতে ব্যাপক ফুল ফুটেছে। গাছে গাছে ফুলের সমারোহ দেখে এবার সজনে ডাঁটার ভালো ফলনের সম্ভাবনার আশা করা হচ্ছে। 

আবহাওয়া এবং প্রাকৃতিক কোনো দুর্যোগ না হলে এবার সজনে বেশি উৎপাদন হবে বলে জানিয়েছে বদলগাছী কৃষি অফিস। এতে মৌসুমি ব্যবসায়ীরা লাভবান হওয়ার সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন। 

বদলগাছী উপজেলায় সজনে গাছে প্রচুর পরিমাণে সজনে ডাঁটার ফুল ফুটেছে। স্থানীয় ও  দেশের বিভিন্ন হাট বাজারে সজনে ডাঁটার ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। মুখরোচক ও পুষ্টিগুণে ভরপুর সজনে ডাঁটা স্থানীয়ভাবে বিক্রির পাশাপাশি রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি হয়ে থাকে। বাজারে অন্যান্য সবজির চেয়ে সজনের দাম বেশি। তবে গাছগুলোতে যেভাবে ফুল ফুটেছে তাতে এবার দাম একটু কমতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। 

অন্যান্য সবজির চেয়ে সজনে ডাঁটা পুষ্টিগুণ ও স্বাদে বেশি হওয়ায় যে কোনো বয়সের মানুষ সজনে খেতে ভালোবাসেন। সজনে গাছের ডাল কেটে মাটিতে পুঁতে রাখলেই গাছ জন্মায়। গাছের কোনো পরিচর্যার প্রয়োজন হয় না। অযত্নে অবহেলায় প্রাকৃতিকভাবে বেড়ে উঠে সজনে গাছ। বড় ও মাঝারি ধরনের একটি গাছ থেকে ছয় থেকে আট মণ পর্যন্ত সজনে পাওয়া যায়। বিনা খরচে অধিক আয় হওয়ায় অনেকেই বাণিজ্যিকভাবে সজনে চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছেন। উপজেলার গ্রামগুলোর মাটি, পানি ও আবহাওয়া সজনে চাষের অনুকূলে থাকায় প্রতি বছর প্রচুর পরিমাণে সজনে উৎপাদন হয়। 

বদলগাছী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ হাসান আলী বলেন, সজনে ডাঁটাকে পুষ্টির ডিনামাইট বলা হয়। এই উপজেলার মাটি ও আবহাওয়ায় সজনের ফলন ভালো হয়। এ এলাকার কৃষকদের সজনে চাষের জন্য বিভিন্নভাবে উৎসাহিত করা হচ্ছে।