Joy Jugantor | online newspaper

পরিবেশবান্ধব ইট উৎপাদনে ঋণ পেতে সহযোগীতা করবে সরকার

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১২:৩২, ২৫ জানুয়ারি ২০২৩

পরিবেশবান্ধব ইট উৎপাদনে ঋণ পেতে সহযোগীতা করবে সরকার

সংগৃহীত ছবি।

স্থাপনা নির্মাণে পরিবেশবান্ধব ইট (ব্লক) উৎপাদনকারীদের ব্যাংক ঋণ পেতে সরকার সহযোগিতা করবে বলে জানিয়েছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনের প্রথম অধিবেশন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান মন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেন, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের অনেক দায়িত্ব ডিসি সাহেবদের। এ বিষয়ে উনারা অবহিত আছেন। আজকে এ সম্মেলনে পরিবেশ ও বন সুরক্ষার জন্য, জলবায়ু পরিবর্তনের অভিঘাত মোকাবিলার জন্য ডিসিদের করণীয় বিষয়ে আমরা অবহিত করেছি। উনাদের দায়িত্ব বিষয়ে অবহিত করেছি।

তিনি বলেন, টিলা কাটা, গাছ কাটা, বন উজাড় করা, অবৈধ ইটভাটা, যেগুলো পরিবেশের ক্ষতি করছে, পরিবেশের ক্ষতি করা প্লাস্টিক ও পলিথিন বিষয়ে উনাদের করণীয়, পাখি নিধন বন্ধ, পরিবেশ ও প্রতিবেশ সুরক্ষার জন্য যে আইন রয়েছে, সেই আইন অনুযায়ী যাতে আমাদের সহযোগিতা করেন, সে বিষয়ে সহযোগিতা চেয়েছি। উনারা কথা দিয়েছেন আমাদের সহযোগিতা করবেন। পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য রক্ষায় যেটুকু সরকারি দায়িত্ব রয়েছে তারা সেটা পালন করবেন।

ডিসিদের পক্ষ থেকে কী প্রস্তাব ছিল- জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, উনারা অনেক কিছু জানতে চেয়েছেন। আমাদের সচিব মহোদয় সেগুলোর জবাব দিয়েছেন। অনেক জেলায় আমাদের পরিবেশ অধিদপ্তরের অফিস নেই। আমরা তাদের আশ্বস্ত করেছি, বাকি ১৪ জেলায় অফিস করবো, সেখানে কর্মকর্তা নিয়োগ দেবো।

পরিবেশবান্ধব ইট উৎপাদন বৃদ্ধিকে উৎসাহিত করতে সরকারের কোনো উদ্যোগ আছে কি না, জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ২০২৫ সালের মধ্যে সরকারি স্থাপনায় শতভাগ পরিবেশবান্ধব ইট ব্যবহার করা হবে। সেই আলোকে প্রজ্ঞাপনও জারি হয়েছে। পরিবেশবান্ধব ইট যারা করবে, তাদের আমরা সহযোগিতা করবো। তারা যাতে সহজে ব্যাংক লোন পান, আমরা সেই ব্যবস্থা করবো।

তিনি বলেন, ‘আমরা যত বেশি মানুষকে পরিবেশবান্ধব ইট দিতে পারবো, তত দ্রুত ইট বন্ধ করতে পারবো। ব্লক ইটে আমরা চহিদা মেটাতে যদি সক্ষম হই, তখন পুরোনো ইটের ভাটা বন্ধ হয়ে যাবে।