Joy Jugantor | online newspaper

সরকারি আজিজুল হক কলেজে ছাত্রলীগ-ছাত্রদলের পাল্টাপাল্টি মিছিল

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৫:৪০, ২৬ নভেম্বর ২০২২

আপডেট: ১৭:৩৭, ২৬ নভেম্বর ২০২২

সরকারি আজিজুল হক কলেজে ছাত্রলীগ-ছাত্রদলের পাল্টাপাল্টি মিছিল

ছাত্রলীগ-ছাত্রদলের পাল্টাপাল্টি মিছিল।

বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজে পাল্টাপাল্টি মিছিল করেছে ছাত্রলীগ ও ছাত্রদল। এতে মুহূর্তের মধ্যে কলেজ ক্যাম্পাসসহ আশেপাশের এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। 

শনিবার (২৬ নভেম্বর) দুপুর ১ টার পরে এ ঘটনা ঘটে। 

জানাযায়, নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের উপর হামলার প্রতিবাদে সরকারি আজিজুল হক কলেজ শাখা ছাত্রদল বিক্ষোভ মিছিল বের করে।

দুপুর দেড়টার দিকে মিছিলটি শহরের সেউজগাড়ী আমতলী মোড় থেকে শুরু হয়ে কলেজ ক্যাম্পাসের কামাড়গাড়ি রেলগেট এলাকায় গিয়ে শেষ হয়।

এরপরই ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা জড়ো হয়ে কলেজ ক্যাম্পাসের বটতলা থেকে মিছিল শুরু করেন। দুপুর সোয়া ২ টার দিকে শুরু হওয়া এ মিছিল কামাড়গাড়ি মোড় দিয়ে সাতমাথা-তিনমাথা সড়ক হয়ে আবারও কলেজ ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে।

এ সময় ছাত্রলীগের প্রায় শতাধিক নেতাকর্মী লাঠিসোটা হাতে কলেজে অবস্থা নেন। 

বগুড়া জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি তৌহিদুর রহমান ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাফুজার রহমান ছাত্রলীগের মিছিলের নেতৃত্ব দেন। অপরদিকে ছাত্রদলের মিছিলের নেতৃত্ব দেন সংগঠনটির কলেজ শাখার নেতা সন্ধান সরকার। 

এসময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেন বলেন, ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা নাশকতার উদ্দেশ্য নিয়ে কলেজ ক্যাম্পাসের দিকে আসছিলেন। খবর পেয়ে কলেজে  শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আমরা অবস্থান নিয়েছি। 

সরকারি আজিজুল হক কলজে ছাত্রদল নেতা সন্ধান সরকার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমাদের কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সভাপতি ও সম্পাদকের উপর নারায়াণগঞ্জে নগ্ন সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। এর প্রতিবাদে আমরা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে কলেজ ক্যাম্পাস এলাকায় যায়। আমাদের প্রতিবাদ ছিল শান্তিপূর্ণ।

ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা লাঠিসোটা ও দেশীর অস্ত্র নিয়ে মিছিলে হামলার চেষ্টা করেছেন। এখনও তারা প্রকাশ্যে কলেজে অস্ত্রসহ আছেন। 

বগুড়া জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি তৌহিদুর রহমান বলেন, ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা সন্ত্রাসী কায়দায় কলেজে প্রবেশের চেষ্টা করেছেন। আমরা তাদের প্রতিহত করেছি মাত্র। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা জীবিত থাকা অবস্থার ছাত্রদলকে কলেজে আসতে দেওয়া হবেনা। 

বগুড়া জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাফুজার রহমান জানান, ছাত্রদলের নামে যাদের অছাত্র নেই আজ তারা সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালানোর জন্য কলেজে প্রবেশের চেষ্টা করেছেন।

এই ক্যাম্পাসে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের আদর্শের বাহিরে কেউ রাজনীতি করার সুযোগ পাবেনা। আমরা প্রতি মূহুর্তে কলেজে সাধারণ শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে কাজ করছি। 

বগুড়া সদর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রহিম জানান, ছাত্রদলের নেতারা মিছিল নিয়ে আসলেও কলেজে প্রবেশ করেনি। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা কলেজ ক্যাম্পাসে আছেন। কোন অনাকাঙ্ক্ষিত পরিবেশ তৈরি হয়নি। 

বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর শাহজাহান আলী জানান, কলেজে ছাত্রদলের কেউ প্রবেশ করেনি। ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা স্বাভাবিকভাবেই ছিলেন। প্রশাসনকে অবহিত করা আছে।