Joy Jugantor | online newspaper

রংপুরে ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে পাঁচ আসামির আমৃত্যু কারাদণ্ড

রংপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২০:২৬, ২৪ নভেম্বর ২০২২

রংপুরে ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে পাঁচ আসামির আমৃত্যু কারাদণ্ড

দণ্ডিতদের কারাগারে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।

রংপুরে এক কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় পৃথক মামলায় পাঁচ আসামিকে আমৃত্যু কারাদণ্ড ও এক আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রংপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালত-২ এর বিচারক মো. রোকনুজ্জামান এ রায় দেন। এ সময় আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত প্রত্যেক আসামিকে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। 

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন গঙ্গাচড়া উপজেলার নরসিংহ মর্ণেয়া গ্রামের আবুজার রহমান (২৮), আলমগীর হোসেন (২৭), নাজির হোসেন (৩২), আব্দুল করিম (২৯) এবং আমিনুর রহমান (২৯)। এদের মধ্যে আলমগীর হোসেন পলাতক। বাকি চার আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। 

মামলা ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, মামলার প্রধান আসামি অভিযুক্ত আবুজার রহমানের সঙ্গে ভুক্তভোগী কিশোরীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। একপর্যায়ে ওই অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। এ অবস্থায় বিয়ের জন্য চাপ দিলে অস্বীকৃতি জানান আবুজার। ওই কিশোরী তাদের প্রেমের সম্পর্কের বিষয়টি পরিবারসহ গ্রামবাসীকে জানিয়ে দেবে হুমকি দেয়। 

 ২০১৫ সালের ১৪ মে ভুক্তভোগী কিশোরীর বাবা ও মা লালমনিরহাটে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যান। এ সময় ওই কিশোরী ও তার ভাগনি বাড়িতে একা ছিল। এ সুযোগে আবুজার সহযোগীদের নিয়ে সন্ধ্যায় কিশোর বাড়িতে যান। তাকে কৌশলে ডেকে নিয়ে পাশের একটি খেতে নিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করেন। 

পরে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে তাকে হত্যা করে পালিয়ে যান। ঘটনার পরদিন সকালে খেত থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে। পরে কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে গঙ্গাচড়া থানায় হত্যা মামলা করেন। প্রায় সাত বছর মামলাটি আদালতে বিচারাধীন থাকার পর ১০ জনের সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে আজ মামলার রায় হয়। 

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী জাহাঙ্গীর আলম তুহিন বলেন, আদালতের রায়ে আমরা সন্তুষ্ট। বাদীপক্ষ ন্যায় বিচার পেয়েছে। 

একই দিনে জেলার তারাগঞ্জে আরেক কিশোরীকে ধর্ষণ করা মামলায় আসামি মিঠুন শেখ ওরফে সবুজকে (২৬) যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালত-৩ এর বিচারক এম আলী আহমেদ এ রায় দেন। এ ছাড়া আসামিকে ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। 

রায় প্রদানের সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। সবুজ বদরগঞ্জ উপজেলার গোপালপুর শেখেরহাট এলাকার বাসিন্দা। এ মামলার সঙ্গে সম্পৃক্ততা না থাকায় অপর চার আসামিকে খালাস দিয়েছেন আদালত।