Joy Jugantor | online newspaper

শেন ওয়ার্নের ‘শেষ প্রেমিকা’ দাবি করলেন অজি সুন্দরী

ডেস্ক রিপোর্ট 

প্রকাশিত: ১৮:০৭, ১৮ আগস্ট ২০২২

শেন ওয়ার্নের ‘শেষ প্রেমিকা’ দাবি করলেন অজি সুন্দরী

২২ গজের এক বর্ণময় চরিত্র ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রয়াত ক্রিকেট কিংবদন্তি শেন ওয়ার্ন। শুধু নিজের ক্রিকেটশৈলী দিয়েই নয়, মাঠের বাইরের নানা কাণ্ডেও বরাবরই সংবাদের শিরোনাম হতেন তিনি। এবার এই কিংবদন্তির বর্ণাঢ্য জীবনের আরেকটি অজানা অধ্যায় সামনে নিয়ে এলেন নিজেকে তার ‘শেষ প্রেমিকা’ হিসেবে দাবি করা অজি ইনফ্লুয়েন্সার জিনা স্টুয়ার্ট।

মাঠের বাইরে রঙিন জীবন-যাপনের জন্য বরাবরই বিতর্কের কেন্দ্রে ছিলেন শেন ওয়ার্ন। তেমনই এক বিতর্কের জেরে ২০০৭ সালে স্ত্রী সিমোন কালাহানের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় তার। এরপর ২০১১ সালে ইংলিশ মডেল-অভিনেত্রী লিজ হার্লির সঙ্গে মন দেওয়া-নেওয়া করেছিলেন, বাগদানও সম্পন্ন হয়েছিল। তবে ওয়ার্নের বাঁধনহীন জীবনাচরণের বলি হয় সে সম্পর্কও। এরপর ওয়ার্ন আর কারো সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন কিনা তা অবশ্য এতদিন জানা যায়নি।

তবে ওয়ার্নের মৃত্যুর প্রায় পাঁচ মাস পর ‘ওয়ার্ল্ড'স হটেস্ট গ্র্যান্ডমা’ খ্যাত মডেল জিনা স্টুয়ার্ট এক ব্রিটিশ দৈনিকের সঙ্গে আলাপচারিতায় সাবেক ক্রিকেটারের সঙ্গে তার সম্পর্কের ঝাঁপি খুলেছেন। ওয়ার্নের আকস্মিক মৃত্যুতে একেবারে ভেঙে পড়েছেন জানিয়ে এই মডেল বলেন, ‘বিগত কয়েক মাসে আমি ভেঙে পড়েছি। এই বিশ্ব এক কিংবদন্তিকে হারিয়েছে। আমি হারিয়েছি এক বিশ্বস্ত বন্ধুকে। অবিশ্বাস্য কিছু ঘটে গিয়েছে। আমি শেনকে ডেট করছিলাম। ও চেয়েছিল বিষয়টি ব্যক্তিগত রাখতে।’

ওয়ার্নের সঙ্গে তার পরিচয়ের স্মৃতি রোমন্থন করে এই মডেল বলেন, ‘শেন গোল্ড কোস্টে এসেছিল। একটি ক্রিকেট ম্যাচের পর আমাদের দেখা হয়। সারা রাত একসঙ্গে কাটিয়ে একে-অপরকে চিনেছিলাম। অত্যন্ত ইন্টারেস্টিং চরিত্র। ওর জীবনের গল্প শুনতে ভালবাসতাম। আমরা অত্যন্ত কাছের হয়ে উঠেছিলাম। আমি শেনকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম যে, প্রকাশ্যে আমাদের কথা বলব না। আমি পাপারাজ্জিদের ব্যাপারে খুব সতর্ক থাকতাম। শেন ও আমি হ্যাট আর সানগ্লাস পরেই বাইরে ঘুরতাম। মেলবোর্নেও আমাদের দেখা হয়। ওকে নিয়ে মিডিয়ার এই কৌতুহল ও একদম পছন্দ করত না।’

ওয়ার্ন সম্পর্কের বিষয়টি গোপন রাখতে চাইলেও কেন সেটিকে প্রকাশ্যে নিয়ে এলেন, তার ব্যাখ্যাও দিয়েছেন জিনা, ‘ও চাইত না আমাদের গল্প সামনে আসুক। এই প্রথম আমি আমাদের সম্পর্ক নিয়ে কথা বললাম প্রকাশ্যে। আমি পৃথিবীকে বলতে চাই যে, অত্যন্ত আগলে রাখার মতো মানুষ ছিলেন।’

গত মার্চে ওয়ার্নের মৃত্যুতে শোকে মুহ্যমান হয়ে পড়ে ক্রিকেট দুনিয়া। থাইল্যান্ডে নিজের ভিলায় অবস্থানকালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন ওয়ার্ন। ১৯৬৯ সালে জন্ম নেওয়া এই কিংবদন্তি সব ধরনের ক্রিকেট মিলিয়ে ২৮৬৩ উইকেটের মালিক।