Joy Jugantor | online newspaper

যে ৮ ভুলে ফোনের তথ্য যেতে পারে হ্যাকারদের কাছে 

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৫:১৬, ১৯ নভেম্বর ২০২১

যে ৮ ভুলে ফোনের তথ্য যেতে পারে হ্যাকারদের কাছে 

প্রতীকী ছবি।

আপনি যদি অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করেন তাহলে আপনার জন্য সতর্কবার্তা। ইন্টারনেট থেকে আপনি কী ডাউনলোড করছেন কিংবা গোপনীয় তথ্য সংরক্ষণের জন্য কোন অ্যাপস ব্যবহার করছেন। 

বর্তমানে বিশ্বে অধিকাংশ জনগোষ্ঠী অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করে। আর এই অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের ফোনগুলো হ্যাকার এবং স্ক্যামারদের কাছে আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু। 

চলুন দেখে নেওয়া যাক যে ৮ প্রকারের ভুলে ফোনের মাধ্যমে আপনি স্ক্যামারদের সহযোগিতা করছেন-

১. ফোনে ব্লটওয়ার রাখা 
নতুন অ্যান্ড্রয়েড ফোন কেনার পর তাতে বেশ কিছু অ্যাপস থাকে, এর মধ্যে কিছু অ্যাপস আছে যেমন: QuickTime, CCleaner, uTorrent, Adobe Flash Player. এই অ্যাপসগুলোকে বলা হয় ব্লটওয়ার। এগুলো যদি আপনার ফোনে থাকে তাহলে দ্রুত ডিলিট করে দিন। কারণ এগুলোর মাধ্যমে আপনার ফোনের নিয়ন্ত্রণ হ্যাকারদের কাছে চলে যেতে পারে। 

২. পাসওয়ার্ড ব্যবহার না করা
যে কোনো সময় আপনার ফোনটি হারিয়ে যেতে পারে। এজন্য ফোন হারিয়ে গেলেও যেন কোনো বিপদে পড়তে না হয়, সেক্ষেত্রে ফোনে সব সময় ডেটা চালু করে রাখুন। ফোনটি অফ করে অন করার সময় যেন পাসওয়ার্ড প্রয়োজন হয় সেটি করে রাখুন। যদি ফোনটি হারিয়ে যায় তাহলে হ্যাকারটা সহজে আপনার ফোনের মধ্যে থাকা তথ্যগুলো নিয়ন্ত্রণে নিতে পারবে না।  

৩. ডাউনলোড অ্যাপ চেক না করা 
ইন্টারনেট থেকে কিছু ডাউনলোড করার জন্য বিভিন্ন ধরনের ডাউনলোড অ্যাপ ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু অনেক সময় এগুলো চেক করা হয় না। এজন্য সেটিংস অপশনে গিয়ে দেখে নিন কোন কোন ডাউনলোড অ্যাপ আপনার ফোনে রয়েছে। যদি এর বাইরে অপরিচিত কোনো অ্যাপ ফোনে দেখা যায় তাহলে সেগুলো ডিলিট করে দিন। 

৪. পুরাতন অ্যাপস ডিলিট না করা 
আপনার ব্যবহৃত ফোনটিতে অনেক পুরাতন অ্যাপস থাকে যেগুলো খুব একটা ব্যবহার করা হয় না। এই অ্যাপস ম্যালওয়ারের শিকার হতে পারে এজন্য এগুলো ফোনে না রেখে দ্রুত ডিলিট করে দিন। 

৫. সবক্ষেত্রে একই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা
অনেকেই আছেন গুগল অ্যাকাউন্টসহ সবক্ষেত্রে একই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করেন। আবার অনেকে এই পাসওয়ার্ড পরিবর্তনও করেন না। এক্ষেত্রে তথ্য সুরক্ষিত রাখতে কয়েকমাস পর পর পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করুন। 

৬. নির্দিষ্ট সোর্স ছাড়া অ্যাপ ইনস্টল করা
অনেকেই রয়েছেন অপরিচিত কোনো সাইট থেকে অ্যাপ ইনস্টল করে থাকেন। এটা না করে গুগল প্লে স্টোর থেকে অ্যাপ ইনস্টল করুন। তাহলে ফোনের তথ্য সুরক্ষিত থাকার পাশাপাশি ম্যালওয়ারের হাত থেকে রক্ষা পাবেন। 

৭. এপিকে ফাইল ব্যবহার
অনেক অ্যাপ গুগল প্লে স্টোরে পাওয়া যায় না, এক্ষেত্রে এপিকে ফাইল ব্যবহার করে কিছু অ্যাপ ডাউনলোড করতে হয়। তবে এপিকে ফাইল ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে ফোন ম্যালওয়ারের শিকার হতে পারে। 

৮. অ্যাপস ডাউলোডের ক্ষেত্রে নীতি ও শর্ত না পড়া
প্রত্যেকটি অ্যাপস ডাউনলোড করার ক্ষেত্রে টামর্স এন্ড কন্ডিশনা পড়ে নিতে হবে। কারণ বেশ কিছু অ্যাপস ব্যবহারের ক্ষেত্রে ফোনের বিভিন্ন তথ্য চেয়ে থাকে। এক্ষেত্রে যদি শর্ত না পড়েন তাহলে যেকোনো সময় বিপদে পড়তে পারেন।