Joy Jugantor | online newspaper

বগুড়ায় ‘ভোট বর্জন’ নৌকার প্রার্থীর, এজেন্টও দেননি কেন্দ্রে

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২৩:২৯, ২৭ নভেম্বর ২০২১

আপডেট: ০০:০৪, ২৮ নভেম্বর ২০২১

বগুড়ায় ‘ভোট বর্জন’ নৌকার প্রার্থীর, এজেন্টও দেননি কেন্দ্রে

আলীম উদ্দিন। ফাইল ছবি

বগুড়ার সদর উপজেলার নুনগোলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের নৌকা মার্কার প্রার্থী আলীম উদ্দিন ‘ভোট থেকে সরে আসার ঘোষণা’ দিয়ে কেন্দ্রগুলোতে কোন এজেন্টও দেননি। এছাড়াও তার সমর্থকদেরও কোন তৎপরতা দেখা যায়নি। 

জানা যায়, শনিবার দিবাগত রাত ২ টার দিকে ভোট গ্রহণের আগের রাতে দলীয় নেতা-কর্মীদের অসহোযোগিতার অভিযোগ এনে আলীম উদ্দিন অনানুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন। আলীম উদ্দিন ওই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান। 

ইউনিয়নের পলিকুকরল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রিজাইডিং অফিসার নুরুল ইসলাম জানান, ‘নৌকা মার্কা ছাড়া সব মার্কার এজেন্ট আমার এখানে আছেন। শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ চলছে।’ 

এবার নুনগোলা ইউপি নির্বাচনে আলীম উদ্দিনকে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করা হয়। এরপর তার বিরোধীতা করে ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বদরুল আলমও নির্বাচনে অংশ নেন। আর শুরু থেকেই ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি বজলুর রশিদ স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মাঠে রয়েছেন। তবে নির্বাচনের আমেজ শুরুর পর থেকেই সেখানে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সমর্থক ও বিদ্রোহী প্রার্থীর অনুসারীদের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। ছুরিকাঘাটের একাধিক ঘটনাও ঘটেছে। এ নিয়ে থানায় দুই পক্ষ থেকে মামলাও করা হয়েছে। 

এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সংঘর্ষ, হামলা, মামলা কারণে ভোটের মাঠে কার্যত একা হয়ে পড়েছেন আলীম উদ্দিন। তিনি আগে থেকেই বুঝতে পারছিলেন এবার নির্বাচনে তার পরাজয় ঘটতে পারে। আর নুনগোলা বিএনপি-জামায়াত অধ্যুষিত এলাকা। রাজনৈতিক দিক থেকেই এখানে নৌকার প্রার্থীর বিজয় অনেক চ্যালেঞ্জিং। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের শক্তিশালী বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে মাঠে। সব মিলে নির্বাচনের এই সংকটময় মুহূর্তে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের পাশে না পেয়ে হয়তো আলীম উদ্দিন ভোট থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষাণা দিয়েছেন। 

বিষয়গুলো স্বীকারও করেছেন আওয়ামী লীগের মনোনীত এই প্রার্থী। নৌকা মার্কার প্রার্থী আলীম উদ্দিন জানান, ‘আমাকে আমার দলীয় নেতা-কর্মীরা অসহোযোগিতা করছেন। আমার দুই ভাই বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকের হামলায় আহত হয়ে হাসপাতালে৷ আমি এজন্য নির্বাচন থেকে সরে এসেছি। কেন্দ্রে এজেন্টও দেইনি। আমি নিজেও ভোট দিতে যাব না।’