Joy Jugantor | online newspaper

বগুড়ায় নির্বাচনী মিছিলে ছুরিকাঘাত, গ্রেপ্তার ৪

প্রকাশিত: ১৪:৩২, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

আপডেট: ১৫:০৫, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

বগুড়ায় নির্বাচনী মিছিলে ছুরিকাঘাত, গ্রেপ্তার ৪

বগুড়া সদর থানা।

বগুড়া পৌরসভা ছয় নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী আনন্দ কুমার দাসের নির্বাচনী মিছিলে কর্মী-সমর্থকদের উপর হামলার ঘটনায় চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। 

এ ঘটনায় শুক্রবার রাত থেকে শনিবার ভোর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানান বগুড়া সদর থানার ওসি হুমায়ুন কবির। 

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন, শহরের নাটাইপাড়ার তন্ময় কুমার দত্ত, উত্তর চেলোপাড়ার টুলু ব্যাপারী, দক্ষিণ চেলোপাড়ার মো. বাতেন ও মধ্য চেলোপাড়ার বিষ্ণু। তারা সবাই ওই ওয়ার্ডের বিএনপি সমর্থিত কাইন্সিলর প্রার্থী পরিমল চন্দ্র দাসের সমর্থক-কর্মী।  

নির্বাচনী মিছিলে হামলার ঘটনায় আনন্দ কুমার বাদী হয়ে ৩৭ জনের নাম উল্লেখ করে শুক্রবার রাতে বগুড়া সদর থানায় একটি মামলা করেন। ওই মামলা তন্ময়, টুলু, বাতেন ও বিষ্ণুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।   

এর আগে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে এই দত্তবাড়ি ব্রিজের পুর্ব পাশের লাশকাটা ঘরের সামনে আন্দন্দ কুমারের নির্বাচনী মিলিলে হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় আনন্দ কুমারের কর্মী মোহাম্মদ আলী শান্ত (২২), মিলন (৪৮) ও নিপুল (৩৫) আহত হন।  এরা সবাই চেলোপাড়ার বাসিন্দা। এদের মধ্যে শান্ত  ও মিলনকে ছুরি দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। পরে তাদের উদ্ধার করেন বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন বলে জানান কাউন্সিলর প্রার্থী আনন্দ কুমার দাস।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে একটি নির্বাচনী প্রচারণার মিছিল শেষ করে দত্তবাড়ি থেকে চেলোপাড়ার দিকে যাচ্ছিল। মিছিলে হর্ন বাজানো নিয়ে হামলাকারীরা কথাকাটি শুরু করে। এর এক পর্যায়ে ব্রিজের পূর্ব পাশের লাশকাটা ঘরের সামনের দিকে মিছিলটি আসলে একদল দুবৃর্ত্তরা অতর্কীতে হামলা চালায় বলে অভিযোগ করা হয়। হামলায় তারা লাঠিসোটা, ধারালো অস্ত্র নিয়ে এলোপাথারিভাবে মারধর শুরু করে বলে অভিযোগ আনন্দ কুমার। 

আহতের বিষয়ে জানতে চাইলে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ পরিচালক আব্দুল ওয়াদুদ বলেন, ‘নির্বাচনী সহিংসতার ঘটনায় যারা ভর্তি রয়েছেন তারা সবাই সঙ্কামুক্ত রয়েছেন।’ 

ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করে বগুড়া সদর থানার ওসি হুমায়ুন কবীর বলেন, ’সহিংসতার এই ঘটনায় চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের আদালতে পাঠানো হচ্ছে। অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।’