Joy Jugantor | online newspaper

কাগজের বোতল আনছে কোকা-কোলা

প্রকাশিত: ২০:৪৯, ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১

কাগজের বোতল আনছে কোকা-কোলা

প্রতীকী ছবি

তারা ১০০ শতাংশ প্রাকৃতিক প্যাকেজিং উপকরণ ব্যবহার করার পরিকল্পনা করছে

কোকা-কোলা নামটির সঙ্গে প্লাস্টিকের সম্পর্ক বহুদিনের। পানীয়টি ধারণকারী প্লাস্টিকের বোতল সরাসরি পরিবেশ দূষণের সঙ্গে জড়িত-এমনটাই বলছেন বিশেষজ্ঞরা। 

এমনকি "ব্রেক ফ্রি ফ্রম প্লাস্টিক'' নামের একটি দাতব্য সংস্থার বার্ষিক সমীক্ষায় বিশ্বের এক নম্বর প্লাস্টিকের দূষণকারী হিসেবে স্থান পেয়েছে কোকা-কোলা কোম্পানি। 

তবে এবার প্রথমবারের মত কাগজের বোতল প্রবর্তন করছে কোকা-কোলা। কোম্পানির ওয়েবসাইটে একটি ব্লগ পোস্টে ঘোষণা করা হয়েছে,  উদ্যোগটির মাধ্যমে ২০৩০ সালের মধ্যে বিক্রি হওয়া প্রত্যেকটি বোতল সংগ্রহ করবে যেন সেগুলোর পুনর্ব্যবহার করা যায়। তারা ভার্জিন প্যাকেজিং উপকরণগুলোর ব্যবহারকে যথেষ্ট পরিমাণে হ্রাস করার এবং ১০০ শতাংশ প্রাকৃতিক প্যাকেজিং উপকরণ ব্যবহার করার পরিকল্পনা করছে।

"আমাদের লক্ষ্য এমন একটি কাগজের বোতল তৈরি করা যা অন্য যে কোনও কাগজের মতো পুনর্ব্যবহারযোগ্য হতে পারে এবং এই প্রোটোটাইপটি আমাদের অর্জনের পথে প্রথম পদক্ষেপ," বলছিলেন কোকা-কোলা'র ইএমইএ আরআরডি প্যাকেজিং ইনোভেশন ম্যানেজার স্টিজন ফ্রান্সসেন।

তিনি আরও বলেন, "কাগজের বোতল প্যাকেজিংয়ের সম্ভাবনায় সম্পূর্ণ নতুন একটি পৃথিবী উন্মুক্ত করবে এবং ভবিষ্যতে কাগজের প্যাকেজিংয়ের ভূমিকা থাকবে বলেও আমরা নিশ্চিত।" 

প্রকল্পটি এখনও সম্পূর্ণ হয়নি এবং নতুন কাগজের বোতলে এখনও প্লাস্টিকের অল্প ব্যবহার রয়েছে। তবে কোম্পানিটি সম্পূর্ণ প্লাস্টিক-মুক্ত সংস্করণের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।

উদ্যোগটি কোকা-কোলার প্রোগ্রামের একটি অংশ যা "ওয়ার্ল্ড উইথ ওয়েস্ট" বা বর্জবিহীন পৃথিবী নামে পরিচিত।