Joy Jugantor | online newspaper

রোদে ত্বক পুড়লে যা করবেন না

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৩:৫৪, ২৯ জুলাই ২০২২

আপডেট: ১৩:৫৫, ২৯ জুলাই ২০২২

রোদে ত্বক পুড়লে যা করবেন না

রোদে ত্বক পুড়লে যা করবেন না

কয়েকদিন ধরে খুবই গরম পড়ছে। ফলে যাদের ত্বক সংবেদনশীল, তারা দীর্ঘসময় রোদে কাজ করার ফলে সানবার্ন বা রোদে ত্বক পুড়ে যাওয়ার ঘটনার মুখোমুখি হচ্ছেন। রোদে পুড়ে তামাটে হয়ে যাচ্ছে ত্বকের রং।

যদি ত্বক বেশি লাল হয়ে যায় বা ফোসকা পড়ে, তাহলে ত্বক রোদে অত্যধিক পুড়েছে বলে ধরে নিতে হবে। যারা সরাসরি সূর্যালোকে অনেক সময় ধরে কাজ করে, তাদের এমনটি হতে পারে। শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছোট ছোট ফোসকা ওঠে।

এ ধরনের পরিস্থিতিতে ত্বক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেওয়া উচিত। তিনি করণীয় বলে দেবেন, পাশাপাশি কিছু বিষয়ে সতর্কও করবেন। এখানে রোদে ত্বক অত্যাধিক পুড়ে গেলে করা উচিত নয় এমনকিছু বিষয় উল্লেখ করা হলো।

* টাইট পোশাক পরবেন না: রোদে ত্বক পুড়ে গেলে তা বাতাসের সংস্পর্শে থাকার প্রয়োজন আছে। যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের খ্যাতনামা ত্বক বিশেষজ্ঞ শিরিন ইদ্রিস বলেন, ‘রোদে পোড়া ত্বকের ওপর টাইট পোশাক পরবেন না, কারণ প্রদাহ বেড়ে যাবে। শরীর ইতোমধ্যে রোদে পোড়া ত্বককে সারিয়ে তুলতে ওখানে রক্তপ্রবাহ বাড়িয়ে দিয়েছে। এর ফলে স্থানটি লাল, উষ্ণ ও প্রদাহিত হয়।’ এসময় টাইট পোশাক পরলে প্রদাহ আরো বৃদ্ধি পাবে এবং ফোলা ও ফোসকা আরো শোচনীয় হবে।

* অ্যালোভেরা সমৃদ্ধ পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার করবেন না: রোদে পোড়া ত্বকে অ্যালোভেরা সমৃদ্ধ পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার করতে যাবেন না, কারণ এটি তাপ ধরে রাখে। এর ফলে ত্বকের অবস্থা আরো খারাপ হবে। এছাড়া আমেরিকান একাডেমি অব ডার্মাটোলজির প্রতিবেদনে বেনজোকেইন বা লিডোকেইন সমৃদ্ধ প্রোডাক্টও এড়িয়ে যেতে বলা হয়েছে, কারণ এতেও ত্বকের অবস্থা আরো বেশি খারাপ হবে।

* পানি পানে অবহেলা করবেন না: যুক্তরাষ্ট্রের লুইসিয়ানার খ্যাতনামা ত্বক বিশেষজ্ঞ কেইথ লিব্ল্যাঙ্ক জুনিয়র বলেন, ‘পোড়া ত্বকে কেবল ব্যথাই হয় না, প্রকৃতপক্ষে এটি শরীরের অন্যান্য অংশ থেকে পানিও টেনে নেয়। তাই রোদে ত্বক পুড়লে সচরাচরের তুলনায় অতিরিক্ত পানি গ্রহণ নিশ্চিত করুন। এমনকি ফলের শরবত ও স্পোর্টস ড্রিংকসও পান করতে পারেন। ডিহাইড্রেশনের লক্ষণ প্রকাশ পাচ্ছে কিনা সতর্ক থাকুন।’

* মেকআপ লাগাবেন না: পোড়া ত্বকে মেকআপ ব্যবহার করবেন না। পোড়া স্থানটি বাতাসের সংস্পর্শে থাকলে ভালোভাবে সেরে ওঠবে। ডা. শিরিন বলেন, ‘নোংরা স্পঞ্জ বা ব্রাশের মাধ্যমে পোড়া ত্বকে বিভিন্ন ধরনের মেকআপ লাগালে ইনফেকশন বা অ্যালার্জিক রিয়্যাকশনের ঝুঁকি বাড়বে। শেষপর্যন্ত যা খারাপ দেখাবে।’

* পোড়া চামড়া তুলবেন না: রোদে পোড়া চামড়া তুলে ফেলছেন বা খোঁচাচ্ছেন? তাহলে মারাত্মক পরিণতি হতে পারে। তবে পোড়া চামড়া নিজ থেকে ওঠে আসলে আসুক। এটা ভালো কিছুরই ইঙ্গিত, অর্থাৎ সেরে ওঠতে শুরু করেছে। ডা. লিব্ল্যাঙ্ক বলেন, ‘রোদে পোড়া ত্বকের চামড়া প্রাকৃতিকভাবে পড়ে যেতে দিন। এসময় আরো ভালো ফল পেতে আপনার পছন্দের ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে পারবেন। এতে রোদে পোড়া ত্বকের উন্নতি হবে এবং প্রাকৃতিকভাবে মৃতকোষ ঝরে যাবে।’

* ফোসকা ফাটবেন না: রোদে শরীরে ফোসকা পড়লে তা ফাটবেন না। বিশেষজ্ঞদের মতে, রোদে পোড়া ত্বকের ফোসকা ফাটানো উচিত নয়।এর কারণ হলো, ফোসকার বাবল স্থানটির সুরক্ষায় খুবই গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে। ফোসকায় খুবই ব্যথা অনুভব করলে ক্রিম-বেসড আনসেন্টেড অ্যালোভেরা ব্যবহার করতে পারেন।

* অ্যালকোহল-বেসড ক্রিম ব্যবহার করবেন না: রোদে পোড়া ত্বকে ক্রিম ব্যবহারের ক্ষেত্রে নিশ্চিত হোন যে, প্রোডাক্টটি অ্যালকোহল-বেসড নয়। ডা. শিরিন জানান, ‘অ্যালকোহল আমাদের ত্বকের প্রাকৃতিক তেল দূর করে ফেলে। অ্যালকোহল উপাদান রয়েছে এমন ক্রিম পোড়া ত্বকে ব্যবহার করলে ত্বকের নিরাময় ক্ষমতা কমে যায়।’

* প্রদাহনাশক ওষুধ সেবনে দেরি করবেন না: রোদে পোড়া ত্বকের প্রতি শরীরের প্রতিক্রিয়া স্বরূপ প্রদাহ তৈরি হয়। প্রদাহ কমাতে রোদে পোড়া ত্বকের লক্ষণ দেখামাত্র কিছু করা উচিত। প্রদাহ কমানোর একটি সেরা উপায় হলো, দ্রুত আইবুপ্রোফেন বা অ্যাসপিরিনের মতো ওটিসি প্রদাহনাশক ওষুধ সেবন করা। দেরি করলে ওটিসি প্রদাহনাশক ওষুধ তেমন কাজ করবে না।