Joy Jugantor | online newspaper

নিয়মিত মুগ ডাল খাওয়ার আশ্চর্য উপকারিতা

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৭:৩৫, ২০ নভেম্বর ২০২১

নিয়মিত মুগ ডাল খাওয়ার আশ্চর্য উপকারিতা

সংগৃহীত ছবি

পুষ্টিগুণে ভরপুর সুপারফুড মুগ ডাল। উদ্ভিজ প্রোটিনের এক পরিপূর্ণ উৎস এই ডাল। যেকোনো ডালের তুলনায় এর প্রোটিনের পরিমানও অনেক বেশি। এ ছাড়া মুগডালে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে  ভিটামিন, পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, কপার, জিঙ্ক, ফোলেট ও ফাইবার।

এছাড়া মুগডাল খেলে হজমেও সমস্যা হয় না। এতে ফ্যাট বা কার্বোহাইড্রেট একদমই থাকে না বলে এটি ওজন কমাতেও বেশ সাহায্য করে। বিভিন্ন সমস্যায় মসুর ডাল এড়িয়ে যেতে বলা হলেও, মুগ ডাল এড়িয়ে চলার কথা বলা হয় না। এমনকি অসুস্থ ব্যক্তিদেরও পথ্য হিসেবে দেয়া হয় মুগডালের খিচুড়ি। এছাড়া সবুজ মুগ পানিতে ভিজিয়ে কাঁচাও খাওয়া যায়।

 পুষ্টিতে ভরপুর মুগ ডাল | 20Fours


পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ মুগ ডাল মেলে অনেক স্বাস্থ্য উপকারীতাও। জানুন মুগ ডাল খাওয়ার যত স্বাস্থ্য উপকারিতা-

ওজন কমায়
মুগ ডালে ফাইবার এবং প্রোটিনের পরিমান বেশি থাকার কারণে ওটি ওজন কমাতে সহায়তা করে। গবেষণায় দেখা গেছে, ফাইবার এবং প্রোটিন ক্ষুধা বৃদ্ধিকারক হরমোনকে দূর করতে পারে। এর ফলে বেশি খাবার খাওয়ার প্রবনতা কমে যায়। তাই এটি ওজন কমাতে সহায়তা করে।

হার্ট ভালো রাখে
মুগডালের মধ্যে থাকে পটাসিয়াম ও আয়রন। যার ফলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে। আর এর ফলে হার্টের মধ্যে দিয়ে রক্তপ্রবাহ ভালো হয়। পেশি কর্মক্ষম থাকে। সেই সঙ্গে যাদের হার্টবিট বেশি থাকে তা স্বাভাবিক ছন্দে আসে। আর চিকিৎসকদের মতে যাদের হাইপার টেনশন রয়েছে তাদের প্রতিদিন মুগডাল খাওয়ার কথা বলছেন।

স্ট্রোক হওয়ার ঝুঁকি কমায়
মুগ ডালে অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্য থাকায় এটি স্ট্রোক হবার ঝুঁকি কমায়। এতে ভিটেক্সিন এবং আইসোভাইটেক্সিনের মতো অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস থাকে। 

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে
যাদের ডায়াবেটিস রয়েছে তাদের দেহে যাতে ইনসুলিনের পরিমাণ ঠিক থাকে তাই মুগ ডাল খেতে বলা হয়। মুগডালের গ্লাইসেমিক ইনডেক্স কম। আর তা সহজেই ইনসুলিনকে বার্ন করতে পারে। ফলে ডায়াবিটিস খুব সহজেই নিয়ন্ত্রণে থাকতে পারে।

 Moong Dal(মুগ ডাল), 500g – Katwa Bazar

হজম ক্ষমতা বাড়ে
মুগ ডালে ফাইবার এবং প্রতিরোধী স্টার্চ থাকার কারণে এটি হজমে ভালো কাজ করে। এই ডালের ২০২ গ্রামে প্রায় ১৫.৪ গ্রাম ফাইবার থাকে। এ ছাড়া এতে প্রতিরোধী স্টার্চ ও  পেকটিন নামে এক ধরণের দ্রবণীয় ফাইবার থাকে যেটি অন্ত্রের মাধ্যমে খাবারের চলাচলের গতি বাড়ানোর পাশাপাশি অন্ত্রের নিয়মিত গতিবিধি ঠিক রাখতে সহায়তা করে।

রক্তশূন্যতার সমস্যা মেটায়
মূগ ডাল শরীরের রক্তশূন্যতার সমস্যা দূর করে। এর এক কাপে মেলে প্রায় ১৬ ভাগ আয়রন। আর এতে প্রচুর পরিমাণে আয়রন থাকার কারণে এই ডাল নিয়মিত খেলে এটি লোহিত রক্ত কণিকার উৎপাদন বৃদ্ধি করে রক্তশূন্যতা দূর করে

রক্তে শর্করার মাত্রা কমায়
মুগ ডালে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার এবং প্রোটিন থাকার কারণে এটি রক্তের শর্করার পরিমাণ কমাতে সহায়তা করে।এ ছাড়া এটি ইনসুলিনকেও আরও কার্যকরভাবে কাজ করতে সহায়তা করে।