Joy Jugantor | online newspaper

আল-জাজিরার সাংবাদিক হত্যার তদন্ত করবে না ইসরায়েল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক 

প্রকাশিত: ০৯:৫৯, ২০ মে ২০২২

আল-জাজিরার সাংবাদিক হত্যার তদন্ত করবে না ইসরায়েল

ছবি: শিরিন আবু আকলেহ।

কাতার ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার সাংবাদিক শিরিন আবু আকলেহ হত্যার তদন্ত করবে না ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী।

বৃহস্পতিবার (১৯মে) একটি ইসরায়েলি মিডিয়া এ তথ্য প্রকাশ করেছে।

ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর ধারণা, এই হত্যার বিষয়ে তদন্ত ইসরায়েলকে বিতর্কের দিকে নিয়ে যাবে। এবিষয়ে সাংবদিক আবু আকলেহ পরিবার বিস্মিত না হলেও স্বচ্ছ তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে।

ইসরায়েলি সংবাদপত্র হারেৎজ এক প্রতিবেদনে জানায় যে, ইসরায়েলের সামরিক পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ বিশ্বাস করে একটি তদন্ত যা ইসরায়েলি সৈন্যদের সন্দেহভাজন হিসাবে বিবেচনা করে তা ইসরায়েলি সমাজের মধ্যে বিরোধিতার দিকে নিয়ে যাবে।

গত বুধবার  ৫১ বছর বয়সী আবু আকলেহ একজন ইসরায়েলি সৈন্যের হাতে নিহত হন। প্রত্যক্ষদর্শী এবং সহকর্মীদের মতে, জেনিনের দখলকৃত পশ্চিম তীরের শহরে ইসরায়েলি সামরিক অভিযানের কভার করার সময় তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়।

প্রতিবেদনের প্রতিক্রিয়ায় আবু আকলেহের পরিবার বলেছে যে, ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী তার মৃত্যুর তদন্ত না করায় তারা বিস্মিত হয়নি।

শিরিনের পরিবার আল-জাজিরাকে এক বিবৃতিতে বলেছে “আমরা ইসরায়েলি পক্ষ থেকে এটিই আশা করছিলাম। এ কারণে আমরা চাইনি তারা তদন্তে অংশগ্রহণ করুক। আমরা এই হত্যার জন্য দায়ী যে কাউকেই জবাবদিহি করতে চাই।”

“যেহেতু শিরিন একজন মার্কিন নাগরিক তাই আমরা বিশেষ করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অনুরোধ করেছি, একটি ন্যায্য ও স্বচ্ছ তদন্ত শুরু করতে এবং হত্যাকাণ্ড বন্ধ করার জন্য।”

উল্লেখ্য, গত বুধবার (১১মে) ফিলিস্তিনের দখলকৃত পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি সেনাদের গুলিতে আল-জাজিরার সাংবাদিক শিরিন আবু আকলেহ মারা যান।

আল-জাজিরা জানায়, বুধবার সকালে ইসরায়েলি সেনারা জেনিন শহরে অভিযান চালান। সংবাদ সংগ্রহের জন্য সেখানে ছিলেন শিরিন আবু আকলেহ। ওই সময় একটি গুলি সরাসরি তার মাথায় লাগে। হাসপাতালে নেয়ার পর তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

Add