Joy Jugantor | online newspaper

প্রথম ভাষণে যে বার্তা দিলেন তালেবান প্রধানমন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৪:৪১, ২৮ নভেম্বর ২০২১

প্রথম ভাষণে যে বার্তা দিলেন তালেবান প্রধানমন্ত্রী

সংগৃহীত ছবি

দীর্ঘ দুই দশকের মার্কিন শাসন হটিয়ে গত আগস্টে আফগানিস্তানের ক্ষমতায় আসে তালেবান। ক্ষমতা গ্রহণের পর এই প্রথম জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিলেন তালেবান সরকারের প্রধানমন্ত্রী মোল্লা মোহাম্মদ হাসান আখুন্দ।

জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলের প্রতিবেদন অনুযায়ী, শনিবার (২৭ নভেম্বর) দেয়া ভাষণে তালেবান প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যে- তার সরকার অন্য কোনো দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করবে না।
 
আফগানিস্তানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে তালেবানের এই সহপ্রতিষ্ঠাতার অডিও বার্তা প্রচার করা হয়। ওই বার্তায় তিনি আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থাকে আফগানিস্তান থেকে মুখ না ফিরিয়ে নেয়ার অনুরোধ করেছেন।
 
আগামী সপ্তাহে কাতারের রাজধানী দোহায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও তালেবান সরকারের মধ্যে বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। সেটিকে সামনে রেখেই তালেবান প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশ্যে এ ভাষণ দিলেন।

মোল্লা মোহাম্মদ হাসান আখুন্দ ৩০ মিনিট দীর্ঘ ভাষণে বলেন, বিদেশি দেশগুলোকে আশ্বস্ত করে বলছি যে, আমরা তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ করবো না। সবার সঙ্গেই ভালো সম্পর্ক রাখতে চাই আমরা।

ওই বার্তায় আফগানিস্তানে চলমান বিভিন্ন সমস্যার কথাও স্বীকার করেন আফগান প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, সমস্যায় নিমজ্জিত হলেও আমরা আল্লাহর সাহায্যে আমাদের জনগণকে দুঃখ-কষ্ট থেকে বের করে আনার শক্তি অর্জনের সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি। পাশাপাশি যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানকে সহায়তা প্রদানের জন্য আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থাগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সরকার প্রধান।

আফগান প্রধানমন্ত্রী দাবি করেছেন, তার সরকার দুর্নীতি দমনে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা শুরু করেছে। এছাড়া কয়েক মাস ধরে বেতন পায়নি এমন হাজার হাজার সরকারি কর্মীকে বেতন দেয়ার উপায়ও খুঁজছেন তারা।

ওই অডিও বার্তায় মার্কিন সরকারকে আফগান তহবিলের ১০ বিলিয়ন ডলারের ওপর স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের আহ্বানও জানিয়েছেন মোল্লা মোহাম্মদ হাসান আখুন্দ।