Joy Jugantor | online newspaper

রাশিয়া এখন ন্যাটোর বাইরে

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২২:৪৪, ১৯ অক্টোবর ২০২১

রাশিয়া এখন ন্যাটোর বাইরে

সংগৃহীত ছবি


ন্যাটো মিশন স্থগিত করেছে রাশিয়া৷ পাশাপাশি ক্রেমলিন মস্কোতে ন্যাটোর লিয়াজো কার্যালয়ও বন্ধ করে দিচ্ছে৷ সামরিক জোটটিতে থাকা রাশিয়ার আট সদস্যকে ন্যাটো বহিষ্কার করার পর এই ঘোষণা দিলো ক্রেমলিন৷

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সার্গেই লাভরভ সোমবার (১৮ অক্টোবর) জানিয়েছেন যে ন্যাটোতে তার দেশের মিশন স্থগিত করা হচ্ছে৷ তিনি বলেন, ‘‘গত সপ্তাহে সামরিক জোটটির মিশন থেকে আট রুশ কর্মকর্তাকে বহিস্কার করার প্রতিক্রিয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে৷''

NATO - News: Statement by the North Atlantic Council in solidarity with  those affected by recent malicious cyber activities including the Microsoft  Exchange Server compromise, 19-Jul.-2021

ন্যাটো অবশ্য বলছে, বহিষ্কৃতরা আসলে অঘোষিত রুশ গোয়েন্দা কর্মকর্তা৷ আর এই বহিষ্কারের অর্থ হচ্ছে ন্যাটোর ব্রাসেলস কার্যালয়ে কর্মরত রুশ দলের অর্ধেক সদস্য আর সেখানে কাজ করতে পারবেন না৷

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী এই বিষয়ে বলেন, ‘‘ইচ্ছাকৃতভাবে ন্যাটো এই সিদ্ধান্ত নেয়ায় আমাদের কার্যত মৌলিক কূটনৈতিক কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাওয়ার মতো পরিস্থিতিও নেই৷ আর ন্যাটোর উদ্যোগের প্রতিক্রিয়াতে আমরা ন্যাটোতে আমাদের স্থায়ী মিশনের ও প্রধান সামরিক দূতের কর্মকাণ্ড স্থগিত করছি৷''

রাশিয়ার এই ঘোষণার জবাবে ন্যাটোর এক মুখপাত্র বলেছেন, ‘‘আমরা গণমাধ্যমে রুশ মন্ত্রী লাভরভের বক্তব্য দেখেছি, তবে তিনি যেসব ইস্যু উত্থাপন করেছেন সেসম্পর্কে আমরা এখন পর্যন্ত কোনো আনুষ্ঠানিক বার্তা পাইনি৷''

NATO's doors should remain open to enlargement

জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাইকো মাস ডয়চে ভেলেকে জানিয়েছেন যে ন্যাটো মিশন স্থগিত করার রুশ সিদ্ধান্তের কারণে মস্কোর সঙ্গে সম্পর্ক আরো জটিল হয়ে পড়বে৷ তিনি বলেন, ‘‘আমাদের এখন ক্রমান্বয়ে স্বীকার করতে হবে যে রাশিয়া সম্ভবত আর সহযোগিতা করতে চাচ্ছে না৷''

২০১৪ সালে মস্কো ক্রাইমীয় উপদ্বীপ দখল করে নিলে রাশিয়া এবং ন্যাটোর মধ্যকার ব্যবহারিক সহযোগিতা স্থগিত হয়ে যায়৷ তাসত্ত্বেও দুই পক্ষ নিজেদের মধ্যে যোগাযোগের পথ খোলা রেখেছিল যাতে উচ্চ পর্যায়ের সামরিক সহযোগিতা সহজ হয়৷ এছাড়া ইউক্রেনে দেশটির বিতর্কিত কর্মকাণ্ডসহ ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন, ন্যাটোর আকাশসীমা লঙ্ঘন, সমুদ্রপথে ন্যাটোর জাহাজগুলো হেনস্থার ঘটনাসহ নানা কারণে পশ্চিমাদের সঙ্গে মস্কোর সম্পর্কে টানাপোড়েন চলছে৷ ডয়েচভেলে।