Joy Jugantor | online newspaper

‘ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখার রহস্য জানালেন’

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১১:১০, ২৫ মে ২০২৪

‘ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখার রহস্য জানালেন’

আসিন জাহান তন্বি

মডেল, উপস্থাপক এবং অভিনেত্রী আসিন জাহান তন্বির উচ্চতা পাঁচ ফুট দুই ইঞ্চি। পছন্দ করেন সিগ্ধ লুক আর ফুরফুরে মেজাজে থাকতে। এজন্য ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখাটাই প্রধান কাজ বলে মনে করেন তিনি। ২০০৮ সালে ‘বিনোদন বিচিত্রা ফটোসুন্দরী’ প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় রানার আপ হয়ে শোবিজে কাজ শুরু করেন। দেশের প্রায় সব কয়টি টিভি চ্যানেলে উপস্থাপনা করতে দেখা গেছে তাকে। রাইজিংবিডিকে জানিয়েছেন তার দিনযাপন আর ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখার গল্প।

আসিন জানান, কয়েকমাস আগে দেশের বাইরে একটি ট্যুরে গিয়েছিলেন তিনি। পরিবারসহ ট্যুরে গিয়ে খুব মজা হয়েছিল একই সঙ্গে অনেক খাওয়া দাওয়াও করেছিলেন। বিশেষ করে মিষ্টি জাতীয় খাবার অনেক খেয়েছিলেন। ফলে ওজন কয়েক কেজি বেড়ে গিয়েছিল। এরপরেই পুষ্টিবিদের পরামর্শে ডায়েট চার্ট তৈরি করেন। নিজের পছন্দের ফাস্টফুড যে ডায়েট চার্ট থেকে একেবারে বাদ দিয়েছেন তা নয়, তবে একটি বিশেষ উপায় অবলম্বন করেছেন।

আসিন সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠে প্রথমে এক গ্লাস পানি পান করেন। এরপরে চিনি ছাড়া ব্লাক কফি বা গ্রিন টি পান করেন। সারা দিনের খাবারের তালিকায় থাকে সিদ্ধ ডিম, মৌসুমী ফল এবং ফলের জুস। এর বাইরে খুব অল্প পরিমাণে ভাত, সবজি, মাছ বা মাংস খান। সপ্তাহের কোনো একদিন ডায়েটের কিছুই মানেন না, সেদিন ফাস্টফুডও খান। এতে নাকি ডায়েট কন্ট্রোলে আরও মনোযোগী হওয়া যায়।

আসিন বলেন, একটা সময় প্রচুর ফাস্টফুড খেতাম। এরপরে ত্বকে র‌্যাশ দেখা দিয়েছিল। এখন মাঝে মধ্যে খাই। তাই আমি ভালো আছি,  ত্বকও ভালো আছে।

এই সামারে সফট কটনের পোশাক বেশি পরছেন তিনি। আর ত্বকের যত্নে ‘ত্বক ময়েশ্চারাইজ’ রাখার নিয়ম মেনে চলছেন। আসিন জানান তার ত্বক শুষ্ক এবং তৈলাক্ত। যাকে মিশ্র ত্বক বলা হয়। এই গরমে বাইরে যাওয়ার সময় বেড়াতে যাওয়ার সময় বা লং ড্রাইভে যাওয়ার সময় ত্বকের যত্ন নিশ্চিত করার জন্য তিনি মেকআপ ব্যবহার করেন না। ময়েশ্চারাইজার লোশন ব্যবহার করেন। আর চোখে একটু কাজল দেন। এভাবেই নিজেকে প্রস্তুত করে নেন তিনি।

আসিন মনে করেন নিয়মিত ফল খেলে ত্বকের আলাদা যত্নের খুব একটা দরকার হয় না। এমনিতেই ত্বক উজ্জ্বল এবং থাকে। ঘুমাতে যাওয়ার আগে মুখ পরিষ্কার করে লোসন ম্যাসাজ করে নেন। ঠোঁটের ময়েশ্চারাইজার ধরে রাখার জন্য নিয়মিত ভ্যাসলিন ব্যবহার করেন। 

চুলের যত্নে সপ্তাহে একদিন চুলে নারিকেল তেল দেন তিনি। প্রতিদিন চুল শ্যাম্পু না করলে নাকি মেজাজ ফুরফুরে থাকে না তার। হাসতে পছন্দ করেন আসিন। কষ্ট পেলে হাসির ভিডিও দেখেন, গান শোনেন অথবা বই পড়েন। আর তাতেই নাকি আনন্দ পান।পার্কে জগিং করতে পছন্দ করেন। সময় পেলে পার্কে চলে যান। প্রকৃতি কাছে জগিং করলে নাকি মন ভালো থাকে আর ত্বকে ফুটে ওঠে সেই সতেজতা।