Joy Jugantor | online newspaper

বুবলীকে বারবার হত্যাচেষ্টা, আতঙ্কে শুটিংয়ে যাওয়া বন্ধ

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৩:৪১, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

আপডেট: ১৩:৪১, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

বুবলীকে বারবার হত্যাচেষ্টা, আতঙ্কে শুটিংয়ে যাওয়া বন্ধ

শবনম ইয়াসমিন বুবলী

চিত্রনায়িকা শবনম ইয়াসমিন বুবলীকে গাড়িচাপা দিয়ে বারবার হত্যাচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সবশেষ বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে শুটিং থেকে বাসায় ফেরার সময় উত্তরায় তাকে গাড়িচাপা দেয়ার চেষ্টা করা হয়। এর আগের দিন রাতেও উত্তরায় জসীমউদ্দীন রোডে রং সাইড থেকে তার গাড়ির দিকে দ্রুতগতিতে ছুটে আসে নম্বরপ্লেটবিহীন একটি গাড়ি।

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৫টার দিকে বুবলী জাগো নিউজকে এসব তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। বাইরে বের হতে পারছি না। আজ শুটিংয়েও যাইনি। একটু স্বাভাবিক হয়ে দু’একদিনের মধ্যেই নিরাপত্তা চেয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করব।’

বুবলী জানান, করোনার মধ্যে একবার একইভাবে গাড়িচাপা দেয়ার চেষ্টা করা হয়। তখন বিষয়টি হালকাভাবে নিলেও বুধ ও বৃহস্পতিবার পরপর দু’দিন একইভাবে গাড়িচাপা দেয়ার চেষ্টায় তিনি ভীষণ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

চোখ সিনেমার শুটিং নিয়ে ব্যস্ত চিত্রনায়িকা বলেন, ‘আমাকে বারবার হত্যা করতে চাইছে। কারা এটা চাইছে, তা বুঝতে পারছি না। তবে মেরে ফেললে তো তারা খুনের মামলায় ঝামেলায় জড়িয়ে যাবে। এজন্য কৌশলে গাড়িচাপা দিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় স্বাভাবিক মৃত্যু বলে চালিয়ে দিতে চাইছে হয়তো।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি নিজেও ড্রাইভ করতে জানি। বুঝতে পারি তো কোনটা স্বাভাবিক আর কোনটা অস্বাভাবিক। রং সাইড থেকে যদি কোনো গাড়ি আসে, তবে তা ধীরে আসে। এতো দ্রুত গতিতে রং সাইড থেকে গাড়ি এসে কাউকে চাপা দিতে চাওয়াটা অস্বাভাবিক। আর এখন তো ট্রাফিক ব্যবস্থা মোটামুটি ভাল। রং সাইডে গাড়ি ঢোকেই না।’

আইনি ব্যবস্থা নিয়েছেন কি-না প্রশ্নে বুবলী জানান, তিনি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত। ঘটনার পর থেকে তার পরিবার ও আত্মীয়-স্বজনেরা তাকে বের হতে নিষেধ করছেন। তাই তিনি বের হচ্ছেন না। দু’একদিন পর থানায় গিয়ে তিনি জিডি করবেন।

এদিকে বুবলী গাড়িচাপা দিয়ে হত্যাচেষ্টার বিষয় নিয়ে নিজের ফেসবুকেও একটি স্টাটাস দিয়েছেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘সব সড়ক দুর্ঘটনাই দুর্ঘটনা নয়। অনেক সময় পরিকল্পিতও হয়। তা গত দু’দিন টের পেয়েছি। উপলব্ধি করেছি আমরা যা দেখি বা যা শুনি তার পেছনেও অন্য এক অজানা সত্য থাকে। মৃত্যুকে খুব কাছ থেকে দেখলাম আর ভাবছিলাম আজকের দিনটি তো আমাকে নিয়ে অন্য রকম সংবাদও হতে পারত। হয়তো আল্লাহর রহমত, মা বাবা ভাই বোনদের দোয়া আর আপনাদের ভালোবাসায় এ যাত্রায় ভালো আছি।’

তিনি আরও লেখেন, ‘গত চার-পাঁচদিন আমি চোখ নামে একটি সিনেমার শুটিং করছিলাম। যথারীতি শুটিং শেষে রাতে বাসায় ফেরার পথে বিপরীত রাস্তা থেকে কোনো হর্ন না বাজিয়ে, সিগনাল না দিয়ে আমার গাড়ির সামনে প্রচণ্ড বেগে তেড়ে এসেছে একটি প্রাইভেটকার। যার গ্লাস ছিল ব্ল্যাক পেপার দিয়ে মোড়ানো এবং কোনো নাম্বার প্লেট ছিল না।’

বুবলী আরও লেখেন, ‘আমার ড্রাইভার হার্ড ব্রেক না করলে হয়তো অন্য কিছু হতে পারত। আর আমি নিজেও ড্রাইভিং জানি তাই কোনটি দুর্ঘটনা আর কোনটি ইচ্ছাকৃত তা বোঝার ক্ষমতা নিশ্চয় একজন সুস্থ স্বাভাবিক মানুষের মতো আমারও আছে।’

বর্তমানে নিরবের বিপরীতে ‘চোখ’ সিনেমার শুটিংয়ে ব্যস্ত বুবলী। সিনেমাটির শুটিং শেষ হলেও শাকিব খানের সঙ্গে ‘লিডার : আমিই বাংলাদেশ’ সিনেমার শুটিং শুরু করবেন তিনি।