Joy Jugantor | online newspaper

চাঁদে, জমি, কেনার, নামে, প্রতারণার, ফাঁদে, বাংলাদেশিরাও,

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৭:২৮, ২১ নভেম্বর ২০২১

চাঁদে, জমি, কেনার, নামে, প্রতারণার, ফাঁদে, বাংলাদেশিরাও,

প্রতীকী ছবি।

সমতলে লাখ লাখ টাকা দিয়ে জমি কেনার সাধ্য নেই। তাতে কী? মাত্র কয়েক হাজারেই মিলবে, চাঁদে এক একর জমি। অনলাইনে আমেরিকান নাগরিক ডেনিস হোপের, এমন প্রতারণার ফাঁদে পা দিয়েছেন বাংলাদেশিরাও। আর ফাঁদে পড়বে না-ই বা কেন? তিন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ও জেমস বন্ড সিরিজের হিরোসহ বিশ্বনন্দিত বহু মানুষও চাঁদে জমি কিনেছেন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ ধরনের ঘটনার সঙ্গে অর্থ পাচারকারীরা জড়িত কি না, তা খতিয়ে দেখা জরুরি।

কথায় আছে চাঁদ দেখা যায় কিন্তু ছোঁয়া যায় না। সেখানে চাঁদে একখণ্ড জমি! এমন গুজবের পেছনেও ছুটছে মানুষ। কল্যাণের পাশাপাশি প্রযুক্তির ব্যবহার আজ সমাজের জন্য ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ইন্টারনেট দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে প্রতারণার জাল। অনলাইনে লোভনীয় অফারে দীর্ঘ হচ্ছে ফাঁদে পড়া মানুষের লাইনও।

স্ত্রীকে খুশি করতে বিবাহ বার্ষিকীতে চাঁদে জমি কিনে দিলেন স্বামী

জিরো জিরো সেভেন খ্যাত জেমস বন্ডের হিরো ডেনিয়েল ক্রেইগ। তার নাম ব্যবহার করে প্রচারণা চালাচ্ছেন চাঁদের জমির মালিক দাবিদার ডেনিস হোপ। এ তালিকায় নাম আছে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ এইচ ডব্লিউ বুশ, জিমি কার্টার, রোনাল্ড রিগ্যানের। ওয়েবসাইটে এমনটাই দাবি করছেন স্বঘোষিত ছায়াপথের প্রেসিডেন্ট দাবিদার ও চাঁদের জমি বিক্রেতা হোপ।

মঙ্গলসহ ছায়াপথের সব গ্রহ-উপগ্রহের মালিক দাবিদার ডেনিস এম হোপ বলেন, সাবেক তিন মার্কিন প্রেসিডেন্ট, সাবেক মার্কিন স্পিকার টম ফলি, অভিনেত্রী শার্লিস থ্যারন ও টম ক্রুজসহ বিখ্যাত ব্যক্তিরা লুনার অ্যাম্বাসি থেকে জমি কিনেছেন।

চাঁদে জমি কেনা সাতক্ষীরার দুই তরুণ জানান, ইন্টারনেট ঘাটাঘাটি করে তাদের কাছে জমির কেনাবেচার বিষয়টি সত্য মনে হয়েছে। এটি গুজব বা প্রতারণা হতে পারে তা কখনো তাদের কল্পনাতে আসেনি। বরং চাঁদে জমি কিনে প্রমাণ হিসেবে পেয়েছেন কাগজের কিছু টুকরো। পাঁচ হাজার টাকার জমি, ১০ হাজার কোটি টাকায় বেচার পাশাপাশি চাঁদে রেস্টুরেন্ট ও আবাসন প্রকল্প বাস্তবায়নের স্বপ্নও দেখেন এই দুই যুবক।

চাঁদে জমি ক্রেতা সাতক্ষীরার এস এম শাহিন আলম বলেন, প্রথমে লক্ষ্য করেছি তিনজন মার্কিন প্রেসিডেন্ট কিনেছেন, পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের সেলিব্রেটিরা কিনেছেন, শাহরুখ খানের মতো মানুষেরা জায়গা কিনেছেন। সে জায়গা থেকে আগ্রহ অনেক বেড়ে যায়, আমরা কেন কিনতে পারব না?

The man who owns the moon and sells the land to earthbound customer dgtl -  Anandabazar

সাতক্ষীরার আরেক চাঁদে জমি ক্রেতা শেখ শাকিল হোসেন বলেন, গত কয়েকদিন রিসার্চ করি- কীভাবে জমি কেনা যায়, কোন সংস্থা থেকে কেনা যায়, আমরা পেয়ে যাই আমারিকার লুনার অ্যাম্বাসি নামে একটি সংস্থা। তারা জমির মালিকানার সফট কপি দিয়েছে, দ্রুত আমাদেরকে হার্ড কপিও দেবে বলে তারা আমাদের নিশ্চিত করেছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চাঁদে জমি বিক্রির কোনো ভিত্তি নেই। অবাস্তব এমন ধারণা সম্পর্কে সবার সতর্ক থাকা প্রয়োজন।

ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ড. ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, বিষয়টিকে সিরিয়াসলি নেওয়া দরকার। একটা হলো যে ব্যক্তি করছে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। এছাড়া যারা কিনছে তাদের বিরুদ্ধেও আইনি কাঠামোগুলো সামনে এনে ব্যবস্থা নেওয়া দরকার।

বই পড়া, খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকলে মানুষের গুজবের পেছনে ছোটার প্রবণতা কমে আসবে বলে মনে করেন তিনি।