Joy Jugantor | online newspaper

বঙ্গবন্ধু কন্যা গোলামী চুক্তি করেন নি : খাদ্যমন্ত্রী 

নওগাঁ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৭:১১, ৮ জুলাই ২০২৪

বঙ্গবন্ধু কন্যা গোলামী চুক্তি করেন নি : খাদ্যমন্ত্রী 

ছবি সংগৃহীত

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, ট্রানজিট এক দেশের সাথে অন্য দেশের যোগাযোগ বাড়ায়। বিশ্বায়নের যুগে একা থাকলে দেশের উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে না। এসময় তিনি ভারতের সাথে বাংলাদেশের চুক্তি প্রসঙ্গে বলেন,দেশের উন্নয়নে শেখ হাসিনা কাজ করেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা গোলামী চুক্তি করেননি। বিএনপি মিথ্যা বলে মানুষকে বিভ্রান্ত করে। 

সোমবার দুপুরে পোরশা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে রাজশাহী বিভাগের কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় "কৃষি প্রযুক্তি মেলা-২০২৪ " এর উদ্বোধন ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপবৃত্তির চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ ক্ষুধা হবে নিরুদ্দেশ। এই ক্ষুধাকে জয় করতে কৃষিতে প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াতে হবে। ধান রোপন ও ধান কাটায় প্রযুক্তির ব্যবহার করতে হবে।

তিনি বলেন, আমাদের দেশ ধান কাটার সময় শ্রমিক সংকট হয়। হাজার বারোশো টাকা দিলেও শ্রমিক মিলেনা। মেশিনের মাধ্যমে সহজেই অল্প সময়ে অধিক জমির ফসল তোলা সম্ভব। কৃষক ধীরে ধীরে প্রযুক্তিগত সুবিধা নিতে শুরু করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষকের কাছে প্রযুক্তি পৌঁছে দিচ্ছে কোনটা বিনামূল্যে কোনটা ভর্তূকি মূল্যে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন দেশের কোথাও যেন এক ইঞ্চি জমিও যেন পতিত না থাকে। সে কারনে চাষাবাদ বাড়াতে হবে।ঘরের আসে পাশের জমিতেও মরিচ-পেয়াজ এর চাষ করলে পরিবারের খরচ কমবে।দেশের সামগ্রিক উৎপাদনে এটার গুরুত্ব আছে।

পোরশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফ আদনান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আতিয়ার রহমান ,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদুল হাসান খোকন, উপজেলা কৃষি অফিসার মামুনুর রশিদ এবং উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির। 

পরে খাদ্যমন্ত্রী কৃষকদের মাঝে গাছের চারা,ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপবৃত্তির চেক এবং অগ্নিকান্ড ও দূর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ঢেউটিন বিতরণ করেন