Joy Jugantor | online newspaper

জয়পুরহাটে পিকআপে অগ্নিসংযোগ: দুই যুবদল নেতা গ্রেপ্তার

জয়পুরহাট প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১০:৪৮, ৩০ নভেম্বর ২০২৩

জয়পুরহাটে পিকআপে অগ্নিসংযোগ: দুই যুবদল নেতা গ্রেপ্তার

র‌্যাবের অভিযানে গ্রেপ্তার দুই যুবদল নেতা। ছবি: সংগৃহীত

জয়পুরহাটে খালি পিকআপ ভ্যানে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় করা নাশকতার মামলায় যুবদলের দুই নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। তারা হলেন- সদর উপজেলার বাটার মোড় এলাকার মৃত শামসুল হকের ছেলে ও জেলা যুবদলের সদস্য সচিব মুক্তাদুল হক আদনান (৩৫) এবং শান্তিনগর এলাকার আনোয়ার হোসেন খাঁনের ছেলে ও যুবদল নেতা মুহিদুল ইসলাম খাঁন রাজিব (৩৮)।

বুধবার (২৯ নভেম্বর) সন্ধ্যায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জয়পুরহাট র‌্যাব-৫ সিপিসি-৩ ক্যাম্পের অধিনায়ক মেজর শেখ সাদিক। তিনি জানান, বুধবার বিকেল ৩টায় নাশকতা মামলার আসামি ও জেলা যুবদলের সদস্য সচিব মুক্তাদুল হক আদনান এবং যুবদল নেতা মুহিদুল ইসলাম খাঁন রাজিবকে জয়পুরহাট শহরের হাউজিং স্টেট এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ১৮ নভেম্বর রাত সাড়ে ৯টার দিকে সদর উপজেলার পাকারমাথা-বটতলী বাইপাস সড়কের চকদাদরা ফকিরপাড়া গ্রামস্থ খাড়ী ব্রিজের পশ্চিম পাশে বিনশাড়া এলাকায় ৮/১০ জন দুর্বৃত্ত সড়কে থাকা পিকআপে ইট-পাটকেল ও পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে সেটিতে আগুন লাগিয়ে দেয়। পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

ওই ঘটনায় পরদিন ১৯ নভেম্বর সকালে গাড়ির মালিক বিপ্লব হোসেন মন্ডল বাদী হয়ে জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মাসুদ রানা প্রধান, সাবেক জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় কৃষক দল নেতা লায়ন সিরাজুল ইসলাম বিদ্যুৎ, জেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মুক্তাদুল হক আদনানসহ ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও ৩০/৩৫ জনকে আসামি করে বিস্ফোরক আইনে মামলা করেছেন। মামলার পরই মাসুদ রানা (৫০) নামে ইউনিয়ন  বিএনপি নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ মামলায় এখন পর্যন্ত মোট পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সবশেষ গ্রেপ্তার দুই যুবদল নেতার বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নিতে তাদের জয়পুরহাট সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে র‌্যাব।