Joy Jugantor | online newspaper

গোবিন্দগঞ্জে অটোরিকশা ছিনতাইয়ের জন্য বন্ধুকে খুন

গোবিন্দগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি 

প্রকাশিত: ২০:২০, ২৩ জানুয়ারি ২০২৩

গোবিন্দগঞ্জে অটোরিকশা ছিনতাইয়ের জন্য বন্ধুকে খুন

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ থানা।

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ছিনতাইয়ের জন্য কনক প্রামানিককে হত্যা করেছে তার তিন বন্ধু। পুলিশের হাতে গ্রেপ্তারের পর ওই তিন জন এমন কথা জানিয়েছে। সোমবার বেলা ১২ টার দিকে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব বিষয় জানিয়েছে গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি ইজার উদ্দিন। 

এর আগে গত শনিবার নিখোঁজের ৬ দিন পর উপজেলার সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম এলাকার সিংড়া পুকুর থেকে ভাসমান অবস্থায় কনকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এর পরেই অনুসন্ধানে নেমে তিন বন্ধুকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।   

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো-নিহত কনকের বন্ধু উপজেলারহরিরামপুর ইউনিয়নের রামপুর গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে হেলাল মিয়া (২২) ও তার ছোট ভাই দেলাল মিয়া (২০) এবং সৌরভ মণ্ডল (২০)।

ওসি ইজার উদ্দিন বিজ্ঞপ্তিতে জানান, প্রায় দেড় মাস আগে কিস্তিতে একটি ব্যাটারিচালিত অটোরিক্সা কেনে কনক। ঘটনার দিন সন্ধ্যা ৭টার দিকে তার বন্ধুরা তাকে গোবিন্দগঞ্জ বন্দরের উদ্দেশ্যে নিয়ে যায়। এরপর রাতে আর বাড়ি ফেরেনি কনক। আত্মীয়-স্বজনসহ বিভিন্ন জায়গায় তাকে খোঁজাখুঁজি করা হয়। একপর্যায়ে থানায় জিডিও করা হয়। 

নিখোঁজের ৬দিন পর ৯৯৯ নম্বর থেকে ফোন পেয়ে সিংড়া পুকুর থেকে কনকের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই মরদেহ কনকের বলে শনাক্ত করে। 

এ ঘটনায় ওই তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তাকে মারপিট ও গলাটিপে শ্বাসরোধে হত্যা করে। পরে মৃত্যু নিশ্চিত করতে হাত-পা বেঁধে পুকুরে ফেলে দেন গ্রেপ্তার তিনজন । ঘটনাস্থল থেকে ১টি দেশীয় চাকু ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

কনকের বড়ভাই জাকিরুল ইসলাম জানান, তার ছোট ভাই কনক প্রামানিক এবার এসএসসি পাশ করেছে। পড়াশুনার পাশাপাশি অভাবের সংসারেজীবিকার তাগিদে অটোরিকশা ক্রয় করে কনক।