Joy Jugantor | online newspaper

বগুড়ায় ৩০০ মানুষের মাঝে নগদ অর্থ ও বস্ত্র বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক 

প্রকাশিত: ১৯:৩৩, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

বগুড়ায় ৩০০ মানুষের মাঝে নগদ অর্থ ও বস্ত্র বিতরণ

নগদ অর্থ ও বস্ত্র বিতরণ।

বগুড়ায় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন স্বর্ণগ্রামের উদ্যোগে শারদীয় দূর্গাপুজা উপলক্ষে ৩০০ মানুষের মাঝে নগদ অর্থ ও বস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে শহরের সাবগ্রাম ব্যাডস্ পাবলিক স্কুল প্রাঙ্গণে এ আয়োজন করা হয়।

স্বর্ণগ্রামের প্রতিষ্ঠাতা যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী অভিরাম রায়ের পৃষ্ঠপোষকতায় প্রধান অতিথি হিসেবে সকলের হাতে এই ভালবাসার উপহার তুলে দেন বগুড়া জেলা পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী। 

স্বর্ণগ্রামের উপদেষ্টা ও ব্যাডস মানসিক হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. আকতারুজ্জামান সরকার মিন্টুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলার পুলিশ সুপার বলেন, মানুষে মানুষে বৈষম্য দূর করে নিজেদের সুখ দু:খ নিজেদেরই ভাগ করে নিতে হবে। সৃষ্টিকর্তার সন্তুষ্টির জন্যে মানব কল্যাণে নিয়োজিত হলে সেখানেই পরম প্রশান্তি পাওয়া যায়। 

তিনি আরও বলেন, সাবগ্রামে একজন অভিরাম রায় যদি একটি গ্রামকে স্বর্ণগ্রাম হিসেবে গড়ার স্বপ্ন দেখে তাহলে সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এই স্বপ্ন আরো বৃহৎ পরিসরে বাস্তবায়ন করা সম্ভব। 

এসপি সুদীপ বলেন, শারদীয় দূর্গোৎসব বাঙালির প্রাণের উৎসব। প্রতিটি ধর্মই মানুষকে পরিশুদ্ধ করে তোলে এবং সঠিক ধর্মচর্চা মানুষকে সর্বদা মানবতার পথেই ধাবিত করে। এছাড়াও পুজাকে ঘিরে বগুড়া জেলা পুলিশ সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা বিধানে সকল প্রস্তুতি নিয়েছে জানিয়ে তিনি সকলকে অগ্রিম শারদীয় শুভেচ্ছা জানান।
  
স্বর্ণগ্রামের সভাপতি নূর আলম সরকারের ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন মৃত্তিকা সম্পদ উন্নয়ন ইনস্টিটিউট বগুড়ার প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা কৃষিবিদ আমিনুল ইসলাম। 

সংগঠনের সহ-সভাপতি মোস্তাক আহম্মেদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন দুর্নীতি দমন কমিশন বগুড়া জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মনিরুজ্জামান এবং পাসপোর্ট অফিস বগুড়ার সহকারী পরিচালক আজমল কবির। 

এছাড়াও অনুষ্ঠানে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) বগুড়ার উপ-পরিচালক যথাক্রমে মুজাহারুল ইসলাম মামুন ও মাহমুদ হাসান, স্বর্ণগ্রাম সংগঠনের সহ-সভাপতি শাখাওয়াত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ওয়াজেদ শহীদ তরফদার বাঁধন, যুগ্ম সাঃ সম্পাদক মনজুর আহম্মেদ মুক্ত, অর্থ সম্পাদক লক্ষণ রায়সহ সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ, গণমাধ্যমকর্মী ও এলাকার স্থানীয় ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।