Joy Jugantor | online newspaper

বগুড়ায় স্কুলছাত্রের আত্মহত্যা 

শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১২:০৮, ৯ জুন ২০২১

আপডেট: ১৪:০১, ৯ জুন ২০২১

বগুড়ায় স্কুলছাত্রের আত্মহত্যা 

ছবি- জয়যুগান্তর

বগুড়ার শাজানপুর উপজেলায় মুবতাসিন ফুয়াদ প্রীতম নামে এক স্কুলছাত্রের  লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। প্রীতমের বাবা ও পুলিশ বলছে সে আত্মহত্যা করেছে।

বুধবার সকালে উপজেলার  আড়িয়া ইউনিয়নের কাটাবাড়িয়া মধ্যপাড়া প্রীতমের নিজ বাড়ি থেকেই তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

প্রীতম মানিকদিপা পদ্মপাড়া গ্রামের  মো. এনামুল হকের ছেলে। সে বগুড়া পল্লী উন্নয়ন একাডেমি ল্যাবরেটরি স্কুল এ্যান্ড কলেজের  ১০ম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

প্রীতম তার মায়ের ওপর অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে বলে বলছেন শাজাহানপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আরিফ।

সকাল ৬ টার দিকে প্রীতমের ঘরের সিলিংফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ দেখতে পান তার বাবা-মা। পরে পুলিশকে খবর দেয়া হয়।পুলিশ এসে তার লাশ উদ্ধার করে। 

প্রীতমের বাবা এনামুল বলেন, আমার ছেলে আত্মহত্যা করেছে। আমাদের কাছে তার কোনো দাবিও ছিল না। মঙ্গলবার রাতে আমরা একসঙ্গে এশার নামাজ পড়ি।  রাতে পরিবারে সবাই মিলে  খাবার খাই। রাত ১১ টার দিকে প্রীতম তার ঘরে ঘুমাতে যায়। বুধবার ভোরে ফজরের নামাযের জন্য তাকে ডাকতে যাই। ওই সময় তার ঘরের দরজা ও জানালা বন্ধ দেখতে পাই। অনেক ডাকাডাকি করেও  কোনো সাড়াশব্দ পাওয়া যাচ্ছিল না তার। পরে প্রীতমের ঘরের প্লাস্টিকের  দরজা ভেঙ্গে   দেখা যায়, সিলিংফ্যানের সঙ্গে গলায় দড়ি পেঁচানো তার ঝুলন্ত দেহ।'

এসআই আরিফ বলেন, প্রীতম তার মায়ের ওপর অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে। স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকায় ঠিকমত পড়াশোনা করত না সে, একারণে তার মা তাকে বকাঝকা করত। এতে মায়ের ওপর অভিমানে সে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। কোনো অভিযোগ না থাকায় ময়নাতদন্তের ছাড়াই লাশ হস্তান্তর করা হবে।