Joy Jugantor | online newspaper

ফিলিস্তিনে হামলা ও হত্যার প্রতিবাদে বগুড়ায় সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক  

প্রকাশিত: ১৪:৪২, ১৩ মে ২০২১

ফিলিস্তিনে হামলা ও হত্যার প্রতিবাদে বগুড়ায় সমাবেশ

মানববন্ধন সমাবেশ।

ফিলিস্তিনের অধিকৃত গাজা ও জেরুজালেমে ইসরায়লী বাহিনীর হামলায় শিশুসহ নিরীহ মানুষদের হত্যার প্রতিবাদে বগুড়ায় মানববন্ধন সমাবেশ করেছে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ)।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে শহরের সাতমাথা এলাকায় এ কর্মসূচি পালন করা হয়।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাসদ’র জেলার আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সাইফুল ইসলাম পল্টু। এতে বক্তব্য রাখেন সংগঠনটির জেলা কমিটির সদস্য সচিব সাইফুজ্জামান টুটুল, সদস্য মাসুদ পারভেজ, রাধা রানী বর্মনসহ আরো অনেকে।

বক্তব্যে সাইফুল ইসলাম পল্টু বলেন, ‘গত শুক্রবার ও সোমবার ফিলিস্তিনের জেরুজালেমে আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গনে ইসরায়লী বাহিনীর হামলা ও ফিলিস্তিনি নাগরিক নিহত ও আহতের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করছি।’

তিনি বলেন, ‘মার্কিন সাম্রাজ্যবাদের নেতৃত্বে বিশ্ব সাম্রাজ্যবাদী গোষ্ঠী জোর করে ফিলিস্তিনিদের আবাসভূমি দখল করে ইসরায়েল নামক রাষ্ট্র ঘোষণা করে ইহুদীদের বসতি স্থাপন করে। এতে মধ্যপ্রাচ্যে স্থায়ীভাবে সমস্যার বীজ বপন করা হয়েছে। ফলে মার্কিন মদদে ইসরায়লী জায়নবাদী সরকার মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে দস্যুবৃত্তি সন্ত্রাস চালিয়ে অশান্তি তৈরি করে চলেছে।’

পল্টু বলেন, ‘১৯৬৭ সালের এক যুদ্ধে জেরুজালেমের এক অংশ দখল করে তাদের রাজধানী ঘোষণা করে ইসরায়েল। সেই সময় থেকেই প্রতি বছরই ইসরায়েল জেরুজালেম দিবস পালনের নামে ফিলিস্তিনিদের উপর হামলা ও হত্যাকাণ্ড চালায়। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রসহ গুটি কয়েক দেশ ছাড়া পৃথিবীর অন্য কোনো দেশই জেরুজালেমকে ইসরায়লের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়নি।’

সাইফুজ্জামান টুটুল বলেন, ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে প্যালেস্টাইন সমর্থন জানিয়েছিল। বিপরীতে আমেরিকা, ইসরায়েল আমাদের মুক্তিযুদ্ধের বিরোধীতা করেছিল। আজ সেই ফিলিস্তিনের ওপর হামলা  হচ্ছে। অস্ত্র ব্যবসা ও যুদ্ধ ছাড়া সাম্রাজ্যবাদ টিকে থাকতে পারে না সেই কারণে মার্কিন সাম্রাজ্যবাদ সারা বিশ্বে যুদ্ধের উন্মাদনা তৈরিতে নানা ছলচাতুরি করছেন।’

সমাবেশে বক্তারা গাজা ও জেরুজালেমে অবৈধ দখলদার ইসরায়েলের জায়নবাদী হামলা বন্ধ, জেরুজালেমসহ ফিলিস্তিনিদের আবাসভূমি তাদের ফিরে দেয়া এবং ইসরায়লী সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে বিশ্ববিবেককে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান।