Joy Jugantor | online newspaper

নাজমুন নাহারের ১৭৩ দেশ ভ্রমণের মাইলফলক

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১১:৪০, ১০ এপ্রিল ২০২৪

নাজমুন নাহারের ১৭৩ দেশ ভ্রমণের মাইলফলক

বিশ্ব পরিব্রাজক নাজমুন নাহার। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশি বিশ্ব পরিব্রাজক নাজমুন নাহার ১৭৩ দেশ ভ্রমণের ব্যক্তিগত মাইলফলকটি স্পর্শ করেছেন। আফ্রিকার দেশ মাদাগাস্কার ভ্রমণের মাধ্যমে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে এই অনন্য রেকর্ডটি গড়েছেন তিনি।

মাদাগাস্কারের রাজধানী আন্তানানারিভো ছাড়া আগে বিষয়টি নিশ্চিত করেন নাজমুন নাহার নিজেই। তিনি জানান, ‘এবারের ভ্রমণটি ছিল বেশ দুর্ধর্ষ ও কষ্টসাধ্য অভিজ্ঞতার। মঙ্গোলিয়া, সিরিয়া, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, সী শেল ও মাদাগাস্কার—প্রতিটি দেশের অভিজ্ঞতাই ছিল একেকটার চেয়ে ভিন্ন।’

নাজমুন এ বছরের শুরুতেই এবারের অভিযাত্রা শুরু করেন মঙ্গোলিয়া থেকে। ১৬৮ তম দেশ হিসাবে মঙ্গোলিয়া ও দুর্গম সাইবেরিয়া অঞ্চল অভিযাত্রা করেন ডব্লিউপিসি- ওয়ার্ক পারমিট ক্লাউডের পৃষ্ঠপোষকতায়। মঙ্গোলিয়ার জনপ্রিয় পত্রিকা ‘জুনিমেডে (সেঞ্চুরি)’ এবং গো পো গণমাধ্যম নাজমুনকে নিয়ে বিশেষ প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

রমজানের প্রথমেই নাজমুন অভিযাত্রা শুরু করেছেন পৃথিবীর সবচেয়ে কঠিন ও চ্যালেঞ্জিং দেশগুলো ভ্রমণের মাধ্যমে। এই সফরের উদ্দেশ্য ছিল মানব কল্যাণে মানুষের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি করা। তাই আরএফসি- রামাদান ফ্যামিলি কমিটমেন্টের অ্যাম্বাসেডর হয়ে ‘সাফার ফর পিস’-এর এই অভিযাত্রায় শান্তির বার্তা ছড়িয়ে দিতে নাজমুন যুদ্ধ বিধ্বস্ত সিরিয়া, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, আফ্রিকান কন্টিনেন্টের দেশ সী শেল এবং পৃথিবীর অন্যতম দরিদ্র দেশ মাদাগাস্কার ভ্রমণ করেন।

এই ৫টি দেশে নাজমুন ভ্রমণ করেন ৫৬ হাজার ৭৭ কিলোমিটার পথ। যা ছিল অত্যন্ত দুর্গম এবং কঠিনতম দেশ ভ্রমণের অংশ। এই সফরে বাংলাদেশের পতাকা বাহনের পাশাপাশি ইউকে বেসড টিভি চ্যানেল, চ্যানেলে এস এর  উদ্যোগে ২৬টি চ্যারিটিকে সহযোগিতার জন্য মানুষের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি করেছেন নাজমুন।

বাংলাদেশি এই পরিব্রাজক জিম্বাবুয়ে ভ্রমণের মাধ্যমে শততম দেশ পূর্ণ করেছিলেন ২০১৮ সালের ১ জুন। এরপর ২০২১ সালের অক্টোবরে তিনি ১৫০টি দেশ ভ্রমণ সম্পন্ন করেছেন। কিন্তু এখনো তিনি থেকে নেই। লাল-সবুজের পতাকা হাতে তার জয়যাত্রা চলছেই।