Joy Jugantor | online newspaper

গাবতলীতে শিক্ষকের মারধরে  ৯ম শ্রেণির ছাত্রী অজ্ঞান 

গাবতলী (বগুড়া) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ০৩:১১, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

গাবতলীতে শিক্ষকের মারধরে  ৯ম শ্রেণির ছাত্রী অজ্ঞান 

বগুড়ার মানচিত্র।

বগুড়ার গাবতলী মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষকের মারপিটে সামিরা আকতার স্বর্ণা (১৫) নামের ৯ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে অজ্ঞান করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্বর্ণা এখন অজ্ঞান অবস্থায় স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। 

জানা গেছে, গাবতলী পৌরসভাধীন ৫নং ওয়ার্ডের গোরদহ উত্তরপাড়া গ্রামের আ: কাদেরের মেয়ে সামিরা আকতার স্বর্ণা (১৫) মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের ৯ম শ্রেণির একজন ছাত্রী। সে এবার এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। সোমবার স্বর্ণা স্কুলে যায় ক্লাস করতে। কিন্তু দুপুর আড়াইটায় শ্রেণি শিক্ষকের প্রহারে সে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। সহপাঠীরা স্বর্ণাকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করে গাবতলী হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে দেয়। 
স্বর্ণার বাবা স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, হাবিব হাসান বিবেক নামের এক শিক্ষকের মারপিটে তার মেয়ে অজ্ঞান হয়েছে। কিছুতেই জ্ঞান ফিরছে না। দীর্ঘ ৪ ঘন্টা হাসপাতালে অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকলেও এখন পর্যন্ত ওই স্কুলের কোন শিক্ষক স্বর্ণার কোন খোঁজ-খবর নেননি। 
জানতে চাইলে শিক্ষক হাবিব হাসান বিবেক বলেন, স্বর্ণাকে আমি মারপিট করিনি। সাংবাদিক হিসেবে আপনার যা লেখার আপনি লেখেন। 

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ সাবা তাফিয়া আলম জানান, স্বর্ণা ভয়ের কারণে অজ্ঞান হতে পারে। তাকে স্যালাইন দেয়া হয়েছে। স্বর্ণার জ্ঞান না ফিরলেও সবকিছু স্বাভাবিক রয়েছে। 

এ বিষয়ে ইউএনও আফতাবুজ্জামান-আল-ইমরান এর সাথে কথা বললে তিনি বলেন, ঘটনাটি তিনি শুনেননি। তবে তিনি খুব গুরুত্বের সাথে বিষয়টি খতিয়ে দেখবেন বলে জানান।