Joy Jugantor | online newspaper

বাসে অর্ধেক সিট ফাঁকা রাখার সিদ্ধান্ত বাতিল

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৯:১২, ১৩ জানুয়ারি ২০২২

আপডেট: ১৯:৩৯, ১৩ জানুয়ারি ২০২২

বাসে অর্ধেক সিট ফাঁকা রাখার সিদ্ধান্ত বাতিল

ফাইল ছবি।

সম্প্রতি করোনা মহামারি প্রতিরোধে দেশের গণপরিবহন অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে যাত্রী পরিবহনের ঘোষণা দেয় বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। এবার সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে সংস্থাটি।

বিআরটিএ জানিয়েছে, নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গণপরিবহনে যত আসন রয়েছে তত যাত্রী পরিবহন করা যাবে। তবে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে।

ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্যাহ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, শনিবার থেকে গণপরিবহনের যত আসন তত যাত্রী নিয়ে চলাচল করতে পারবে বলে জানিয়েছেন বিআরটিএ’র চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মজুমদার। কারণ অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করলে পরিবহন সংকট দেখা দেয়। এক্ষেত্রে যাত্রী এবং পরিবহন চালক ও হেলপারদের কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচল করতে হবে।

খন্দকার এনায়েত উল্যাহ আরো বলেন, আমরা সব পরিবহন মালিকদের বিআরটিএ’র এই বার্তা পৌঁছে দিয়েছি। এক্ষেত্রে যারা সরকারের স্বাস্থ্যবিধি মানবে না, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সড়কে পুলিশ ও প্রশাসনকে বিষয়টি দেখার জন্য আমরা অনুরোধ করেছি। আমাদের হেলপার ও চালকদের বিধিনিষেধ মানতে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে বলে জানান পরিবহন মালিক সমিতির এ নেতা।

এদিকে গত ১০ জানুয়ারি করোনা মহামারি প্রতিরোধে ১১ দফা বিধিনিষেধ জারি করে সরকার। ১১ দফা বিধিনিষেধের ছয় নম্বর দফায় বলা হয়েছে, ট্রেন, বাস এবং লঞ্চে অর্ধেক যাত্রী নিতে হবে। সব যানের চালক ও সহকারীদের আবশ্যিকভাবে কোভিড-১৯ টিকা সনদধারী হতে হবে।

এতে আরো বলা হয়, জনসাধারণকে অবশ্যই বাইরে গেলে মাস্ক পরতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে সারাদেশে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে।