Joy Jugantor | online newspaper

সাংবাদিক কবিরের মৃত্যু: গাড়িচালকের স্বীকারোক্তি

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৯:২২, ১ ডিসেম্বর ২০২১

সাংবাদিক কবিরের মৃত্যু: গাড়িচালকের স্বীকারোক্তি

গাড়িচালক মো. আবু হানিফ

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) ময়লাবাহী গাড়ির চাপায় সাংবাদিক মো. আহসান কবির খান (৪৬) মৃত্যুর ঘটনায় কলাবাগান থানার মামলায় অভিযুক্ত চালক মো. আবু হানিফ ওরফে ফটিক আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

গতকাল মঙ্গলবার ঢাকার অতিরিক্ত মহানগর হাকিম তোফাজ্জল হোসেনের আদালত তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। বুধবার সংশ্লিষ্ট আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখা সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। 

এর আগে, ২৬ নভেম্বর রাতে চাঁদপুরের হাইমচর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ফটিককে (২৩) গ্রেফতার করে র‌্যাব। গত ২৮ নভেম্বর আসামি হানিফকে আদালতে হাজির করা হয়। এরপর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কলাবাগান থানার এসআই আরিফ হোসেন সড়ক পরিবহন আইনে করা মামলায় পাঁচদিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত তার দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। 

গত ২৫ নভেম্বর দুপুরে সোনারগাঁ মোড় থেকে পান্থপথে যাওয়ার পথে ট্রাফিক সিগন্যালে অপেক্ষা করছিলেন মোটরসাইকেলের পিছনের আসনে বসা আরোহী আহসান কবির খান। এ সময় অন্যান্য গাড়ির সঙ্গে ডিএনসিসির একটি ময়লাবাহী গাড়ি সেখানে অপেক্ষা করছিল। সিগন্যাল ছাড়া মাত্রই আহসান কবির খানের মোটরসাইকেল ধাক্কা খেলে তিনি মাটিতে ছিটকে পড়েন। ময়লাবাহী গাড়ির চালক গাড়ি না থামিয়ে তার ওপর দিয়ে চালিয়ে চলে যায়।

এ সময় অন্যান্য মোটরসাইকেল চালক এবং স্থানীয় লোকজন গাড়িটিকে ধাওয়া দেয়। গাড়িটি গ্রিনরোড সিগন্যাল পর্যন্ত গলে চালক ও তার সহকারী গাড়ি রেখে পালিয়ে যায়। পথচারীরা আহসান কবিরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী নাদিরা পারভীন বাদী হয়ে পরিবহন আইন ২০১৮ এর ১০৫ সড়ক ধারায় কলাবাগান থানায় মামলা করেন।