Joy Jugantor | online newspaper

বগুড়ায় জমজম ড্রিংকিং ওয়াটারকে জরিমানা ১ লাখ টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২০:০২, ২৭ অক্টোবর ২০২১

আপডেট: ২০:২৩, ২৭ অক্টোবর ২০২১

বগুড়ায় জমজম ড্রিংকিং ওয়াটারকে জরিমানা ১ লাখ টাকা

বগুড়ার সদর উপজেলার সাবগ্রাম এলাকায়।

গুণগত মানের তোয়াক্কা না করে বগুড়ায় অবৈধভাবে পানি উৎপাদন ও বিক্রির অভিযোগে মেসার্স জমজম ড্রিংকিং ওয়াটার নামে এক প্রতিষ্ঠানকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বুধবার বিকেলে সদর উপজেলার সাবগ্রাম এলাকায় এই অভিযান পরিচালনা করে জেলা বিএসটিআই। এ সময় সহযোগীতায় ছিল জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) বগুড়া কার্যালয়।

জরিমানাকৃত প্রতিষ্ঠানের মালিকের নাম মমিন ইসলাম (৩০)। তিনি বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলা আবু বক্করের ছেলে।

জানা গেছে, বিএসটিআইর গুণগত সনদ না নিয়ে মেসার্স জমজম ড্রিংকিং ওয়াটার অবৈধভাবে পানি উৎপাদন ও বিক্রি করছিল। এছাড়াও প্রতিষ্ঠানটি প্রশাসনের নজরদারি ফাঁকি দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে সন্ধ্যায় ও রাতে অবৈধ ও অস্বাস্থ্যকর পণ্য তৈরি করে আসছিলো।

এনএসআইয়ের গোপন তথ্যের ভিত্তিতে বিএসটিআই সেখানে যৌথভাবে অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে গিয়ের কারখানায় অস্বাস্থ্যকর অবস্থায় পাওয়া যায়।

পরে সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এতে নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রিপন বিশ্বাস। আদালতে বিচারক রিপন বিশ্বাস ‘বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন আইন, ২০১৮’ আইনে অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানকে এক লাখ টাকা জরিমানা করেন। এ ছাড়াও অস্বাস্থ্যকর খাবার পানির জার, ক্যাপ ধ্বংস করা হয়। 

ভ্রাম্যমাণ আদালতে প্রসিকিউশনে ছিলেন বিএসটিআইয়ের কর্মকর্তা (সিএম উইং) প্রকৌশলী জুনায়েদ আহমেদ। তিনি বলেন, অভিযানে পাওয়া অস্বাস্থ্যকর অবস্থায় উৎপাদিত ১৬টি পানি জার এবং চার হাজার পিস ক্যাপ ধ্বংস করা হয়েছে। 

এ সময় অভিযানে এনএসআইয়ের জেলা কর্মকর্তা এবং র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব-১২) সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।