Joy Jugantor | online newspaper

ধুনটে জমি সংক্রান্ত বিরোধে সংঘর্ষে আহত ২৩

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৮:৩২, ৪ মে ২০২১

আপডেট: ১৮:৩৩, ৪ মে ২০২১

ধুনটে জমি সংক্রান্ত বিরোধে সংঘর্ষে আহত ২৩

বগুড়ার ম্যাপ।

জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বগুড়ার ধুনট উপজেলায় বিএনপি ও আওয়ামী লীগ নেতার মাঝে সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ২৩ জন আহত হয়েছেন। 

এ ঘটনায় বিএনপি নেতার অভিযোগ থানায় মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যার দিকে উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের হিজুলী গ্রামে এ সংঘর্ষ হয়।

এতে আহতরা হলেন, উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য হিজুলী গ্রামের ফজলুল হক (৫৭),  বেলাল হোসেন (৩৫), জিয়াউল হক (২৫), সোহরাব আলী (৫০), জুয়েল রানা (৩০), আমিনা খাতুন (৩২), মাজেদা খাতুন (৩০), নাজমুন নাহার (৪০), রোজিনা খাতুন (৩১), বেগম খাতুন (২৪), নুরজহান খাতুন (৬৫), জমিলা খাতুন (২০), ইউনিয়ন বিএনপির সদস্য সোনাউল্লাহ সেখ (৬৫), নুর মোহাম্মাদ সেখ (৫৫), রায়হান আলী (৩০), রাশেদুল ইসলাম (৩৫), আবুল কাসেম (৬৫), আবু সিদ্দীক (৪৫), এমরুল সেখ (৩৫), মোজাহার আলী (৭০), রেজাউল ইসলাম (৪০), স্বপন সেখ (২৮) ও রানা (৩২)। 

থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য হিজুলী গ্রামের ফজলুল হকের সাথে ইউনিয়ন বিএনপির সদস্য একই গ্রামের সোনাউল্লাহ সেখের জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ রয়েছে। পূর্ব বিরোধের জের ধরে সোমবার সন্ধ্যার দিকে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ২৩ জন আহত হয়েছেন। আহতদের বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, শেরপুর ও ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় বিএনপি নেতা সোনাউল্লাহ সেখ বাদি হয়ে সোমবার রাতে ধুনট থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় আওয়ামী লীগ নেতা ফজলুল হকসহ ১০ জনকে আসামী করা হয়েছে। তবে আওয়ামী লীগ নেতা ফজলুল হকের পক্ষে থানায় কোন অভিযোগ দেওয়া হয়নি।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, জমিজমা নিয়ে পূর্ব বিরোধের জের ধরে সহিংসতার ঘটনায় উভয় পক্ষের ২৩ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় একপক্ষের অভিযোগটি মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়েছে।