Joy Jugantor | online newspaper

আ. লীগে দুই পক্ষের সমাবেশে ১৪৪ ধারা জারি

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১২:৫০, ৮ মার্চ ২০২১

আপডেট: ১৮:৩৭, ৮ মার্চ ২০২১

আ. লীগে দুই পক্ষের সমাবেশে ১৪৪ ধারা জারি

প্রতীকী ছবি

বগুড়ার সোনাতলায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সভা নিয়ে সহিংসতার আশংকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। সোমবার সকাল থেকে রাত আটটা পর্যন্ত উপজেলা মহিচরন বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ১৪৪ ধারা জারি করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন ইউএনও সাদিয়া আফরিন। 

পুলিশ ও প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, আগামী ১৩ মার্চ সোনাতলা উপজেলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিল। এ উপলক্ষে সোমবার সকাল ১০ টায় উপজেলার মহিচরন বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে দিগদাইর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা আহবান করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মিনহাজ্জুমান লিটন। একই সময়ে একই স্থানে দিগদাইর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা আহবান করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জাকির হোসেন।

এতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির হওয়ার আসঙ্কায় সোমবার সকাল ৮ টা থেকে রাত ৮ পর্যন্ত স্কুল মাঠ ও তার আশেপাশের ৪০০ গজ পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করেছে সোনাতলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

জানতে চাইলে সোনাতলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাদিয়া আফরিন বলেন, উপজেলা কাউন্সিলকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা চলছিল। পরে সোনাতলা থানার ওসির মাধ্যমে ওই এলাকার আইন শৃংখলা পরিস্থিতির খোঁজ খবর নেওয়া হয়। ওসির প্রতিবেদনের সাপেক্ষে সহিংসতা এড়াতে মহিচরন বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। তবে এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।  

সোনাতলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল করিম বলেন, মহিচরন বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সভাকে কেন্দ্র করে সহিংসতা ঘটতে পারে। এই পরিস্থিতি বিবেচনা করে উপজেলা প্রশাসন সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করেন। আর পুলিশের পক্ষ থেকে মহিচরন বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। 

১৪৪ ধারা হলো বাংলাদেশের ফৌজদারী কার্যবিধি, ১৮৯৮-এর একটি ধারা। এই আইনের ক্ষমতাবলে কোনো নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কোনো এলাকায় একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য সভা-সমাবেশ করা, আগ্নেয়াস্ত্র বহনসহ যেকোন কাজ নিষিদ্ধ করতে পারেন।