Joy Jugantor | online newspaper

শেরপুরে অস্থায়ী সেতুতে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল, খুলে পড়ছে পাটাতন 

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৪:২৫, ১ মার্চ ২০২১

আপডেট: ১৪:২৬, ১ মার্চ ২০২১

শেরপুরে অস্থায়ী সেতুতে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল, খুলে পড়ছে পাটাতন 

ঝুঁকিপূর্ণ অস্থায়ী সেতু।

বগুড়া শেরপুর উপজেলায় ধুনট-শেরপুর আঞ্চলিক সড়কের বোয়ালকান্দি এলাকায় একটি ঢালাই সেতু নির্মাণের কাজ চলছে। সেতুটি নির্মাণকালীন জনসাধারণের চলাচলের জন্যে সেখানে একটি অস্থায়ী সেতু নির্মাণ করা হয়। কিন্তু ওই অস্থায়ী সেতুটি ঝুঁকিপূর্ণ, যেকোনো সময় বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

উপজেলার বোয়ালকান্দি এলাকায় আগে একটি লোহার সেতু ছিল। সেটি ভেঙে ঢালাই সেতুটি নির্মাণ করা হচ্ছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নির্মাণধীন সেতুর পাশেই দুই সপ্তাহ আগে একটি অস্থায়ী সেতু তৈরি করা হয়েছে। ওই সেতুটি পুরাতন ভাঙা পাটাতন দিয়ে নির্মাণ করা হয়েছে। এ কারণে প্রায় প্রতিদিনই খুলে যাচ্ছে এসব পাটাতন। ফলে দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকছে যান চলাচল। এতে সেতুর দুপাশে আটকে পড়ছে যানবাহনের বহর। ধুনট-শেরপুরের এই আঞ্চলিক সড়ক দিয়ে চলাচল করেন বগুড়ার ধুনট, শেরপুর, সারিয়াকান্দি উপজেলার বাসিন্দাসহ সিরাজগঞ্জের সদর ও কাজীপুর উপজেলার লাখ লাখ মানুষ। তারা এ সেতু দিয়ে চলাচল করতে এসে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। এ সেতু ওপর দিয়ে যান চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ, যেকোনো সময় বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। ঘটতে পারে প্রাণ হানিও।

নির্মাণাধীন সেতু ও অস্থায়ী সেতুটির কাজ করছে খুলনার মোজাহার এন্টারপ্রাইজ নামক একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।

কথা হয় প্রতিষ্ঠানটির প্রকল্প প্রকৌশলী শাহজালাল হোসেন ও ম্যানেজার আতিকুর রহমান আতিকের সাথে। তারা বলেন, অস্থায়ী সেতুটি নির্মাণের সময় ভালো পাটাতন পাওয়া যায়নি। একারণে ভাঙা পাটাতন লাগানো হয়েছিল। তবে ভালো পাটাতন সংগ্রহ করা হয়েছে। 

সড়ক ও জনপদ বিভাগের অনুমতি নিয়ে সেতুর পাটাতন পরিবর্তন করে চলাচল উপযোগী করা হবে। ২ মার্চ (মঙ্গলবার) মাইকিং করে এ সড়ক বন্ধ রাখা হবে। পরে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে সেতুটির কাজ করা হবে।

জানতে চাইলে বগুড়া সড়ক ও জনপদের উপ-সহকারী প্রকৌশলী অনুপ কুমার মিত্র বলেন, ‘আমরা ইতোমধ্যে ভালো পাটাতন নিয়ে এসেছি, দ্রুত সেতুর মেরামত কাজ সম্পূর্ণ করা হবে।